অনৈতিকভাবে আর্থিক সুবিধা নেওয়ার কারনে রুনু গণপিটুনির শিকার, সংবাদ সম্মেলনে চুড়ামনকাটি ছাত্রলীগ

0
709

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর সদর উপজেলা যুবলীগের সদস্য মেহেদি হাসান রুনু একটি ধর্ষণের ঘটনায় অনৈতিকভাবে আর্থিক সুবিধা নেওয়ায় তিনি রোষের শিকার হন বলে দাবি করে বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করেছে চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।

লিখিত বক্তব্যে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আহাদুজ্জামান নয়ন বলেন গত ২ নভেম্বর সন্ধ্যায় চুড়ামনকাটি গ্রামে এক নারী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রাম্য শালিস হয়। এসময় মেহেদি হাসান রুনু ধর্ষিতার বাবাকে নানাভাবে হুমকি ধামকি দিতে থাকেন। এসময় স্থানীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে গণধোলাই দেয়। ঘটনায় দায় ছাত্রলীগের ওপর চাপিয়েছেন রুনু। শালিসে উপস্থিত না থাকলেও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আওয়াল, সহ-সম্পাদক আল আমিন, সদস্য আশিক, হিমেল, সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক মোজাম্মেল হকসহ যুবলীগ নেতাদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে না দেখে প্রভাবিত হয়ে সে মামলা রেকর্ড করেছে।’

মেহেদি হাসান রুনু শিক্ষক পেটানো, মাদক, ডাকাতি, হত্যাসহ সাতটি মামলার আসামি হলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করছে না বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়।

এছাড়া ‘সন্ত্রাসী বাহিনীপ্রধান মেহেদি হাসান রুনুর অত্যাচার, নির্যাতন থেকে বাঁচাতে এলাকাবাসীকে সহযোগিতা করার জন্য সংবাদ সম্মেলনে দাবি জানানো হয়। একই সঙ্গে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাদের নামে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইমন হোসেন, সদস্য মাহবুর রহমান, নাহিদ হাসান, আল আমিন, প্রান্ত হোসেন, আজিম হোসেন, যুবলীগ সদস্য রায়হান হাসান, সেলিম রেজা প্রমুখ।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here