অপেক্ষার প্রহর কাটল সাবার

0
41

জলসা ডেস্ক : শোবিজের প্রিয় মুখ সোহানা সাবা। মডেলিং ও অভিনয়ে তার বিচরণ। নাচের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু হলেও অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত তিনি। সাবার প্রথম সিনেমা ‘আয়না’। কবরী পরিচালিত সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল ২০০৬ সালে।
এরপর মোরশেদুল ইসলামের ‘খেলাঘর’, ‘প্রিয়তমেষু’ মুরাদ পারভেজের ‘চন্দ্রগ্রহণ’, ‘বৃহন্নলা’ এবং সাইফ চন্দনের ‘আব্বাস’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। গণ্ডি পেরিয়ে টালিউডের সিনেমাতেও অভিনয় করেছিলেন এ অভিনেত্রী।

২০১৬ সালে কলকাতায় মুক্তি পেয়েছিল ‘ষড়রিপু’ সিনেমাটি। এটি পরিচালনা করেছিলেন অয়ন চক্রবর্তী। ওই সিনেমায় অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছিলেন সোহানা সাবা। এরপর সাময়িক বিরতি নিয়েছিলেন এ অভিনেত্রী। বিরতি কাটিয়ে ফিরেছেন সম্প্রতি।
করোনার এ সময়টাতে ঘরবন্দি সময় কাটছে সোহানা সাবার। একান্ত প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যাচ্ছেন না। আলাপকালে সময় নিউজকে এমনটাই জানিয়েছেন এ অভিনেত্রী। দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চিন্তিত সাবা। রোববার (২৫ জুলাই) ভ্যাকসিন নিয়েছেন তিনি।
নিজের সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমে জানিয়েছেন সে খবর। রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভ্যাকসিন নিয়েছেন সাবা। তার সঙ্গে সংগীতশিল্পী বাপ্পা মজুমদারও ভ্যাকসিন নিয়েছেন।
টিকা কোনটা নিয়েছেন? জানতে চাইলে সোহানা সাবা এক কথায় বলেন, ‘মডার্না’। টিকা নেওয়ার পর কেমন অনুভূত হচ্ছে? উত্তরে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘তেমন কোনো সমস্যা এখনো হচ্ছে না। শুধু হাতে ব্যথা করছে।’
টিকা নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলেন সাবা। জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘গত এপ্রিলে আমি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলাম। দুবাইয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলাম। দেশে এসে পরীক্ষা করালে পজিটিভ আসে। সুস্থ হওয়ার পর ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। বয়সে আটকে যাচ্ছিলাম। থ্যাংকস গড, আজকে ভ্যাকসিন দেওয়ার ‍সুযোগ পেয়েছি।’
দেশের করোনা পরিস্থিতি নাজুক। দিন দিন বাড়ছে আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে দেশের মানুষকে নিজ দায়িত্বে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন এ অভিনেত্রী।
সাবা বলেন, ‘আমার মনে হয় সচেনতার বিকল্প নাই। দেশের দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে আমি সবাইকে বলব, যাদের সুযোগ আসবে তারাই নিজ দায়িত্বে ভ্যাকসিন নেবেন। স্বাস্থ্যবিধি মনে চলবেন। নিজে নিরাপদ থাকবেন, অন্যদের নিরাপদ রাখবেন।’
অভিনেত্রী সাবা নাম লিখিয়েছেন প্রযোজকের খাতায়। প্রতিষ্ঠা করেছেন খামার বাড়ি নামের প্রযোজনা সংস্থা। ‘টুইন রিটার্নস’ শিরোনামের একটি ওয়েব সিরিজ নির্মাণ হয়েছে খামার বাড়ি থেকে।
নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের খবর জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অনেক কিছু করার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু বারবার হোঁচট খাচ্ছি কোভিড আর লকডাউনের জন্য। সবমিলিয়ে আমি আসলে এলোমেলো হয়ে আছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে কাজগুলো শুরু করতে পারছি না। তাই আপাতত অপেক্ষা করছি।’