অভিনেত্রী শিমু হত্যা: ভাইয়ের মামলা, স্বামীর জিডি

0
72

অনলাইন রিপোর্ট : অভিনেত্রী রাইমা ইসলাম শিমুর (৩৫) বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে কেরানীগঞ্জের হযরতপুর ব্রিজের কাছে তার লাশ উদ্ধার করে কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ। এ ঘটনায় শিমুর স্বামী নোবেলকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন অভিনেত্রীর ভাই শহিদুল ইসলাম খোকন। অন্যদিকে রবিবার দিবাগত রাতে কলাবাগান থানায় (স্ত্রী নিখোঁজ) সাধারণ ডায়েরি করেন শিমুর স্বামী নোবেল।

সোমবার দিবাগত রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে নায়িকা শিমুর ভাই শহিদুল ইসলাম খোকন জানান, কেরানীগঞ্জ থেকে আমার কাছে লাশ শনাক্ত করার জন্য একটা ফোন আসে। সেখানে গিয়ে আমি নিজে আমার বোনের লাশ শনাক্ত করেছি। এরপর মামলা দায়েরের করি। এতে আমার বোন জামাই নোবেলকে প্রথম আসামি করা হয়েছে। সে এবং ফরহাদ নামের একজন এ কাজ করেছে। তার গ্রেফতার হয়েছে। এ বিষয়ে কেরানীগঞ্জ থানার ওসি আমাদের হেল্প করেছেন।
কলাবাগান থানার ডিউটি অফিসার আসআই সুমিত আজ মঙ্গলবার সকালে ইত্তেফাক অনলাইনকে বলেন, রাইমা ইসলাম শিমুর স্বামী রবিবার রাতে সাধারণ ডায়েরি করেন। যার নম্বর-৯৫৪।

এফডিসিতে হাউমাউ করে কাঁদলেন রিয়াজ (ভিডিও)এফডিসিতে হাউমাউ করে কাঁদলেন রিয়াজ (ভিডিও)
তিনি বলেন, ওই ডায়েরিতে তিনি উল্লেখ করেন, গত রবিবার সকাল ৯ টার দিকে শিমু কাউকে কিছু না জানিয়ে বাসা থেকে বের হন। এরপর থেকে তাঁর আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সোমবার রাইমার বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার হয়।
জানা গেছে, শিমুর স্বামী ও গাড়ি চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা র‌্যাবের কাছে কিছু তথ্য দেন। তাদের দেওয়া তথ্যানুযায়ী অভিযান পরিচালনা করেছে র‌্যাব। এ বিষয়ে দুপুর দুইটায় ঢাকা জেলা এসপি তার কার্যালয়ে ব্রিফ করবেন।

প্রসঙ্গত, স্বামী ও দুই সন্তানকে নিয়ে রাজধানীর গ্রিনরোড এলাকার বাসায় থাকতেন ৪০ বছর বয়সী শিমু। ২০২০ সালে এক সাক্ষাৎকারে শিমু জানিয়েছিলেন, ১৯৯৮ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি ১৮ থেকে ২২টি সিনেমায় অভিনয় করেন।