অভয়নগরে চালের কার্ড বাদ দেওয়ায় ইউপি সদস্যের উপর হামলা : আহত -৩

0
76

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : অভয়নগরের চলিশিয় ইউনিয়নের একতারপুর গ্রামতলায় ১০ টাকা কেজি দরের চালের কার্ড বাদ দেওয়ায় ইউপি সদস্যের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঠেকাতে গিয়ে ২জন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আহতরা হলেন, গ্রামতলার ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য রবিউল হোসেন শেখ এর ছোট ভাই কামরুজাম্মান শেখ ও তার ছেলে আল আমিন হোসেন সাগর। অন্য গ্রুপের রুহুল আমিন খান।
গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় এক্তারপুর ঋষীপাড়ার মোড় এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, রুহুল আমিন খানের ১০ টাকা কেজি চালের কার্ড বাদ দেওয়া নিয়ে বাকবিতন্ডা শুরু হয় ইউপি সদস্যের সাথে। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ইউপি সদস্যের উপর হামলা করে রুহুল আমিন খান, নাসির খানসহ অন্যন্যরা। এসময় ঠেকাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন ইউপি সদস্যের ছেলে ও ছোট ভাই। তাদের উভয়ের মাথায় গুরুতর জখম হয় ও সাগরের হাত ভেঙ্গে দেওয়া হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।
ইউপি সদস্য রবিউল শেখ জানান, তার পরিবারে ২টি কার্ড থাকায় নিয়ম অনুযায়ী ১টি বাতিল করা হয়েছে। একারণে সে ক্ষিপ্ত হয়ে সম্পুর্ন অন্যায়ভাবে আমাদের উপর হামলা করেছে। আমরা প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।
এব্যাপারে জানতে চাইলে রুহুল আমিন জানান, আমার স্ত্রীর নামে ১টি কার্ড ও আমার নামে একটি কার্ড রয়েছে, আমার স্ত্রীর নামের কার্ডের চাল মসজিদে দিতে হয়। আর আমার নামের কার্ডটি মেম্বার বাদ দিয়েছে।
অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হাফিজা নার্গিস জানান, সন্ধ্যায় ৩ জন আহত হয়ে হাসপাতালে আসে। তাদের মধ্যে সাগর ও কামরুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। রুহুল হাসপাতালে আছে।
এব্যাপারে জানতে চাইলে গাজীপুর ক্যাম্পের আইসি আনিছুর রহমান আনিছ জানান, দু গ্রুপের সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।