অভয়নগরে রাতের আঁধারে গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

0
33

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : অভয়নগর উপজেলার শ্রীধরপুর ইউনিয়নের পাথালিয়া গ্রামে রাতের আঁধারে ঘরে ঢুকে গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধু বাদী হয়ে অভয়নগর থানায় অভিযোগ করেছেন। থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, পাথালিয়া গ্রামের সোনা মিয়ার পুত্র আব্দুল হাই শেখ (৪০) সোমবার (১৩ জুন) গভীর রাতে কৌশলে ঘরের দরজার খিল খুলে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে। তার স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। দীর্ঘ দিন ধরে আব্দুল হাই প্রায় সময় ঐ গৃহবধকে উত্যক্ত করে আসছিল। স্বামী বাড়িতে না থাকায় সে লোক লজ্জায় কাউকে কিছু বলেননি। যে কারণে তাকে বাড়িতে একা থাকার সুযোগে গভীর রাতে আব্দুল হাই কৌশলে ঘরের দরজার খিল খুলে ঘরে প্রবেশ করে ধর্ষনের চেষ্ঠা করে।
হাসপাতালে গিয়ে গৃহবধুর সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমার ঘরে ঠুকে জাপটে ধরে। আমি ভয়ে চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে আব্দুল হাই নামের এক ব্যক্তি পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয় ইউপি সদস্য নাজিমকে বিষয়টি জানায়। পরে ঘটনা মিমাংসার কথা বলে তালবাহানা করতে থাকে। আমি নিরুপায় হয়ে গত ২৪ জুন শুক্রবার অভয়নগর থানায় নিজ যেয়ে অভিযোগ দেয়ার কথা হলে। লম্পট হাইসহ ৫জন মিলে আমাকেসহ আমার ভাই ও বৃদ্ধা মা কে বেধড়ক মারপিট করে। এসময় আমি আহত হলে প্রতিবেশিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করে। চিকিৎসা সেবা নিয়ে ঔষধ খেয়ে কিছুটা সুস্থ হয়ে শনিবার (২৫ জুন) থানায় অভিযোগ করি। এবিষয়ে পাথালিয়া ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নাজিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি শান্তি প্রিয় মানুষ, বিষয়টি মিমাংসা করে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকুক, এছাড়া আমি আর কি করতে পারি। এ বিষয়ে পাথালিয়া পুলিশ ক্যাম্পের উপ পরিদর্শক এসআই শামছুর রহমান বলেন, গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টার একটি অভিযোগ পেয়ে ঘটনা স্থানে গিয়েছিলাম। তবে ভুক্তভোগি আসামীর আত্মীয় হয়। এ ব্যপারে থানার অফিসার্স ইনর্চাজ (ওসি) একেএম শামীম হাসান, এ বিষয়ে আমার হাতে এখনো কোন অভিযোগ আসেনি। কোন গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টার করার অভিযোগ আসে। তাহলে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।