আসামের এনআরসি থেকে বাদ পড়া ১৯ লক্ষের ভবিষ্যৎ কী?

0
487

ম্যাগপাই নিউজ ডেস্ক : অবশেষে ঘড়ির কাঁটা ধরে ভারতীয় সময় সকাল ১০টায় প্রকাশ করা হল এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা। আসামের ৩ কোটি ৩০ লক্ষ ২৭ হাজার ৬৬১ জন আবেদনকারীর মধ্যে এনআরসি তালিকায় ঠাঁই পেলেন ৩ কোটি ১১ লক্ষ ২১ হাজার ৪ জন। আসামের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়ল ১৯ লক্ষ ৬ হাজার ৬৫৭ জনের নাম। তালিকায় নিজের নাম দেখে কার্যত হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন বহু আসামবাসী। আবার এনআরসি তালিকায় নাম না দেখে একরাশ হতাশা গ্রাস করেছে অনেকের মুখে। কিন্তু এবার তালিকায় যারা নেই তাদের কী হবে? এরপর কী করবেন তাঁরা?

আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল বলেছেন, এনআরসি তালিকা থেকে যাদের নাম বাদ পড়বে, তারা আবেদন করতে পারবেন। ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালে আবেদন করতে পারবেন তালিকার বাইরে যারা। তাদের ১২০ দিনের মধ্যে আবেদন করতে হবে। সরকারের তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, তালিকা থেকে নাম বাদ পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই কাউকে বিদেশি হিসেবে গণ্য করা হবে না। এই ট্রাইব্যুনালে আবেদন করে যদি কেউ হেরে যান, তাহলে তারা হাইকোর্ট বা সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে পারবেন। অন্যদিকে, যদি কারও নাম এনআরসি চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়ে, আবার ট্রাইব্যুনালেও হেরে যান ওই আবেদনকারী, তাহলে গ্রেফতারির মুখে পড়তে পারেন তিনি। আসামের মুখ্যমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, তালিকার বাইরে যারা আইনি সেবা নিতে চান তাদের জন্য সবরকম সাহায্য করবে রাজ্য সরকার।

আসামজুড়ে প্রায় ২৫০০ এনআরসি সেবা কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এনআরসি তালিকায় নাম রয়েছে কিনা তা সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টার মধ্যে সেবা কেন্দ্রে গিয়ে দেখতে পারবেন আবেদনকারীরা। ৩৩টি জেলায় ফরেনার্স ট্রাইব্যুনাল তৈরি করেছে আসাম সরকার। যতক্ষণ না ট্রাইব্যুনালে তালিকার বাইরের থাকা মানুষদের মামলার নিষ্পত্তি হচ্ছে, ততক্ষণ তাদের ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হবে না। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here