ইন্দোনেশিয়ার উপকূলে রহস্যময় দৈত্যাকার প্রাণী

0
268

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইন্দোনেশিয়ার উপকূলে ভেসে উঠেছে দৈত্যাকার এক প্রাণীর মৃতদেহ। এটি কি জায়ান্ট স্কুকইড না নীল তিমি তা এখনো পরিস্কার নয়। দূর থেকে দেখলে মনে হতে পারে সমুদ্রের পানিতে বড়সড় কোনও পাথর জেগে উঠেছে। কিন্তু আসলে তা একটি রহস্যময় প্রাণী। আর সমুদ্রের মধ্যে ভেসে ওঠা এই দৈত্যাকার প্রাণীর দেহকে ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ইন্দোনেশিয়ার সেরাম আইল্যান্ডে।
একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, আসরুল তুয়ানাকোতা নামে স্থানীয় এক যুবক মঙ্গলবার বিকেলে প্রথম প্রাণীটির দেহ পানিতে ভাসতে দেখেন। যদিও অন্তত তিন দিন আগে প্রাণীটির মৃত্যু হয়েছিল বলে মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। যে ব্যক্তি প্রথমবার প্রাণীটিকে দেখেন, তিনি প্রথমে এটিকে একটি নৌকো ভেবে ভুল করেছিলেন। কিন্তু ১৫ মিটার লম্বা এই প্রাণীটি আসলে একটি জায়ান্ট স্কুইড বলেই দাবি করেছে জাকার্তার একটি সংবাদমাধ্যম। চওড়াতেও প্রাণীটি বেশ কয়েক মিটার। প্রাণীটির ওজন আনুমানিক ২ হাজার কেজি। আবার ইন্দোনেশিয়ার মেরিন অ্যান্ড কোস্টাল রিসোর্সেস ম্যানেজমেন্ট-কে উদ্ধৃত করে একটি রিপোর্টে ওই প্রাণীটিকে নীল তিমি বলে দাবি করা হয়েছে। প্রাণীটির আসল পরিচয় জানতে গবেষণাগারে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। স্থানীয় এক বাসিন্দাই প্রাণীটির মৃতদেহের ছবি এবং ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। মালুকু প্রভিন্স-এর হুয়ামুয়াল বিচের কাছে প্রাণীটিকে প্রথম দেখা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here