উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম

0
26

উত্তম চক্রবর্তী,মণিরামপুর(যশোর)অফিস : যশোর জেলার মণিরামপুর উপজেলার হরিহরনগর ইউনিয়নকে নিয়ে দিন রাত উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আগামী দিনের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী বিশিষ্ট সমাজসেবক মাস্টার জহুরুল ইসলাম। এছাড়া রাস্তাঘাট করে দেন পথচারীদের জন্য। বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে জানা গেছে, জহুরুল ইসলাম চেয়ারম্যান হবার পর গরীবের মুখে হাসি ফুটেছে। গরীবের ন্যায অনুদান পাওয়া যাচ্ছে। চা-শ্রমিকদের কথা চিন্তা করে রাস্তাঘাট ও যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য বিদ্যালয়, বিধবা বয়স্কভাতা ব্যবস্থা করে দেন। এলাকার সুধীজনদের সাথে কথা হয় তাঁরা বলেন, জহুরুল ইসলাম চেয়ারম্যান হবার পর, তিনি দেশের এই ক্রান্তি-লগ্নে, সন্তাস ও মাদকমুক্ত সমাজ এবং আধুনিক ইউনিয়ন গড়ার কারিগর। সৎ, যোগ্য, ন্যায় বিচারক, অন্যায়ের প্রতিবাদকারী, হরিহরনগরের গৌরব, ইউনিয়নের উজ্জল নক্ষত্র, জনগণের সবার পরিচিত মুখ,গরীব দুখীর বন্ধু জহুরুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা মোতাবেক গ্রামকে শহরে পরিণত করার জন্য সরকারি সম্পদের শতভাগ সুষম বণ্টন, পরিকল্পিত রাস্তা, ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ, সড়কে বাতি স্থাপন, রাস্তার ধারে পথচারীদের বসার স্থানসহ বৃক্ষরোপন স্যানিটেশন ও স্বাস্থ্যখাতে উন্নয়ন, কৃষকদের সর্বোচ্চ সুবিধা প্রদান, পরিচ্ছন্ন হাট-বাজার, শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে অগ্রগতি, অপরাধ ও মাদক প্রবণতা কমিয়ে আনা, শতভাগ বিদ্যুতায়নসহ স্বচ্ছ এবং জবাবদিহিতার মাধ্যমে ন্যায়ভিত্তিক সমাজ গঠনের মাধ্যমে ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম। চেয়ারম‍্যান জহুরুল ইসলাম বলেন, জনগণ উন্নয়ন চায়, বেঁচে থাকার গ্যারান্টি চায়, স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপনের নিশ্চয়তা চায়, তাই নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জনগণ আমাকে আবারো এই জায়গা করে দিয়েছে, আপনাদের সুখে-দুঃখে সব সময় আমি পাশে আছি ও থাকব। সবার সহযোগিতা পেলে আমি, ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়নে রূপান্তর করব।
আমি যেন আগামীতেও চেয়ারম্যান হয়ে আপনাদের পাশে থাকতে পারি তার জন্য আপনারা সকলে দোয়া ও আশীর্বাদ করবেন।