উপভোগ করছেন নাসির

0
321

ক্রীড়া ডেস্ক: এমনিতে নাসির হোসেন ভীষণ আমুদে, ঠাট্টা-রসিকতায় মাতিয়ে তোলেন চারপাশ। কিন্তু নির্ভার নাসিরের ওপর এখন বিষম চাপ। জাতীয় দলে তাঁর জায়গায় ভিড় অনেক বেড়ে গেছে। তবে জাতীয় দলে ফেরার চ্যালেঞ্জটা যে তিনি ভালোভাবেই নিয়েছেন, বোঝা যায় তাঁর সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স। সেটির ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছেন আজও। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে করেছেন ৬২ রান।

যদিও নাসিরের দাবি, অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগে চট্টগ্রামের প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করতেই হবে, এমন কোনো ভাবনা তাঁর ছিল না, ‘আমি অনেক দিন টেস্ট খেলিনি। চেষ্টা করছি কীভাবে লম্বা ইনিংস খেলা যায়। প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করতেই হবে, এমন কিছু ছিল না। আমি শুধু খেলাটা উপভোগ করার চেষ্টা করছি। অনেক দিন পর লাল বলে খেলছি। ভালো লাগছে, উইকেটে অনেকক্ষণ ব্যাটিং করেছি। আমি উপভোগ করছি।’
গত ২০১৫ সালের জুলাইয়ে দেশের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের পর নাসিরের আর টেস্ট খেলা হয়নি। বিরতিটা দুই বছরের বেশি। দলে সুযোগ পেতে এখন যে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা, সেটিকে অবশ্য ইতিবাচকভাবেই নিচ্ছেন নাসির, ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকা ভালো। এটা থাকলে নিজের ঘাটতি বোঝা যায়। কোথায় উন্নতি করতে হবে, সেটা জানা যায়। প্রতিদ্বন্দ্বিতা আগে ছিল না। এখন আছে। বোঝা যাচ্ছে, বাংলাদেশ দল উন্নতি করছি। সবাই ভীষণ পরিশ্রম করছে।’
ক্যারিয়ারের শুরুতে নাসির ছিলেন ধারাবাহিকতার প্রতিচ্ছবি। কিন্তু খেই হারাতে সময় লাগেনি। ছয় বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ দুটিই দেখে ফেলেছেন তিনি। তো জাতীয় দলে নিয়মিত খেলার সময়ের নাসির আর বর্তমানের নাসিরের পার্থক্য কী? স্বভাবসুলভ রসিকতায় উত্তরটা দিলেন ২৫ বছর বয়সী অলরাউন্ডার, ‘পার্থক্য হচ্ছে আগে সাক্ষাৎকার নিতেন না, এখন নেন!’ অবশ্য পর মুহূর্তেই তাঁর সিরিয়াস জবাব, ‘খেলোয়াড়দের উত্থান-পতন থাকবেই। খারাপ-ভালো সময় যাবে। ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, মানসিকভাবে যদি শক্ত থাকা যায়, ফেরাটা খুব কঠিন হবে না। আমি মানসিকভাবে শক্ত আছি। জানি, ভালো করলে আবার আগের জায়গায় ফিরে আসতে পারব।’
প্রস্তুতি ম্যাচে নাসিরের সঙ্গে আজ ফিফটি পেয়েছেন মুমিনুল হক ও তানভীর হায়দার। এই তিন ফিফটিতে মুশফিকুর রহিমের লাল দলের বিপক্ষে তামিম ইকবালের সবুজ দল প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছে ২৮৩ রান তুলে। আগের দিন ৯ উইকেটে ১৪০ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছিলেন মুশফিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here