এমন এক রেকর্ড গড়লেন সাকিব, যা প্রথমবার দেখল ক্রিকেট বিশ্ব

0
51

অনলাইন প্রতিবেদক : বিশ্বসেরা টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এমন একটি রেকর্ড গড়লেন, যা ক্রিকেট বিশ্ব দেখল প্রথমবার।অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে ৩.৪ ওভারে মাত্র ৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে এক ওভারে তিনি কোনও রানই দেননি। আর এই চার উইকেট নিয়ে সাকিব আল হাসান টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এমন ডাবল কীর্তি গড়লেন যা নেই অন্য কোনো ক্রিকেটারের।

সিরিজের শেষ ম্যাচে ম্যাথু ওয়েড ও অ্যাস্টন টার্নারকে ফিরিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে উইকেটের সেঞ্চুরি করেন সাকিব। এর মধ্য দিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি এবং বিশ্বের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ১০০তম উইকেটের দেখা পেলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। একই সঙ্গে এ ফরম্যাটে ব্যাটিংয়ে এক হাজার রান ও একশ উইকেট নেওয়ার অনন্য কীর্তি গড়েন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ শুরুর আগে মিরপুরের চিরচেনা উইকেটে অসাধারণ কীর্তি গড়তে সাকিবের প্রয়োজন ছিল ৫ উইকেটের। ৯৫ উইকেট নিয়ে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরু করেছিলেন সাকিব। প্রথম তিন ম্যাচে সাকিব একটি করে উইকেট পেয়েছিলেন। চতুর্থ ম্যাচে ছিলেন উইকেটশূন্য। আজ শেষ ম্যাচে নিজের প্রথম ওভারে পেয়ে যান ম্যাথু ওয়েডের উইকেট। তার শর্ট বল পুল করতে গিয়ে বোল্ড হন অজি অধিনায়ক। তৃতীয় ওভারে বাঁহাতি স্পিনার পৌঁছে যান মাইলফলকে। তার বলে টার্নার কভারে মাহমুদউল্লাহর হাতে ক্যাচ দেন। এরপর ইনিংসের ১৪ তম ওভারে অজি শিবিরে জোড়া আঘাত হানেন সাকিব। এবার তার শিকার নাথান এলিস ও এডাম যাম্পা। নাথান এলিসকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান সাকিব আর এডাম যাম্পা মাহমুদউল্লাহর হাতে ধরা দেন।
৮৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে সাকিবের রান ১৭১৮। বল হাতে উইকেট পেয়েছেন ১০৪টি। তবে এ ফরম্যাটে উইকেট শিকারির তালিকায় সাকিব রয়েছেন দুই নম্বরে। ১০৭ উইকেট নিয়ে মালিঙ্গা সবার উপরে। পরের জায়গায় রয়েছেন বাংলাদেশের সুপারস্টার সাকিব আল হাসান। ৯৯ উইকেট নিয়ে টিম সাউদি রয়েছেন তিনে। শহীদ আফ্রিদির উইকেট ৯৮টি। ৯৫ উইকেট নিয়ে রশিদ খান রয়েছেন পাঁচে।