এলাকা বাড়িয়ে যশোরে ‘লকডাউন’ বাড়লো আরো এক সপ্তাহ, নতুন সনাক্ত ২০৬

0
57

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শহর ছাড়াও পাশের চারটি ইউনিয়ন নূতন উপশহর, নওয়াপাড়া, আরবপুর এবং চাঁচড়াকে অন্তর্ভুক্ত করে লকডাউন’ বাড়লো আরো এক সপ্তাহ।

এর আগে গেল ৯ জুন দিনগত মধ্যরাত থেকে যশোর ও নওয়াপাড়া পৌর এলাকায় ‘কঠোর স্বাস্থ্যবিধি আরোপ’ করা হয়। করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির প্রেক্ষিতে জেলা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

সপ্তাহের মাথায় আজ বিকেলে উল্লিখিত কমিটির সভা বসে। সেখানে সার্বিক বিষয় পর্যালোচনা করে ‘লকডাউনের’ সময় ও আওতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সন্ধ্যায় বৈঠক শেষে কমিটির অন্যতম সদস্য প্রেসক্লাব যশোর সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন এই তথ্য দেন।
তিনি জানান, এই সময়কালে আগের বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে। জেলার অভ্যন্তরীণ রুটের যাত্রীবাস চলবে না। তবে দূরপাল্লার গাড়ি চলবে।
আজকের সভায় জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, পৌরসভার মেয়র হায়দার গণী খান পলাশ, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, প্রেসক্লাব সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, দুইজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে গত রাতে পরীক্ষা করা নমুনাগুলোর মধ্যে ২৩৬টি পজেটিভ ফল দিয়েছে। যশোর ছাড়াও পাশের জেলা মাগুরা ও নড়াইলের মোট ৫১৩টি নমুনা পরীক্ষা করে এই ফল পাওয়া যায়। অর্থাৎ শনাক্তের হার চল্লিশেরও বেশি।
এদিন শনাক্ত করোনা রোগীদের মধ্যে যশোর জেলার ২০৬ জন, মাগুরার আট এবং নড়াইলের ২২ জন রয়েছেন।