কক্ষপথে বঙ্গবন্ধু-১

0
128

নিজস্ব প্রতিবেদক : যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে উৎক্ষেপণের ১০দিন পর কক্ষপথে পৌঁছেছে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১।

রোববার (২১ মে) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএসসিএল) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের স্যাটেলাইট কক্ষপথে তার অবস্থান নিয়েছে। সাধারণত স্থিতিশীল হতে ১২ দিন সময় নেয়। আমরা আশা করছি দুই-চারদিনের মধ্যে এটি স্থিতাবস্থায় থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট প্রশান্ত মহাসাগরের মধ্য দিয়ে ও ইকুয়েডরের রাজধানী কিটো শহরের ওপর দিয়ে কক্ষপথ বরাবর এগোচ্ছে বলে স্যাটেলাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইটের ইমেজ থেকে জানা গেছে। আর ৩৫ হাজার কিলোমিটার উপরে যাওয়ার পরই ৩৬ হাজার কিলোমিটারে কক্ষপথ শুরু হয়। তবে এখন স্যাটেলাইটের গতি ধীর, কারণ স্থিতাবস্থায় থাকার সময় হচ্ছে। এছাড়া ওয়েবসাইটে স্যাটেলাইটের অগ্রসর হওয়ার বিষয়টিও স্পস্ট দেখা যাচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ প্রকল্পের জন্য রাশিয়ান প্রতিষ্ঠান ইন্টার স্পুটনিক ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী, ১১৯ দশমিক ১ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশ অরবিটাল স্লট লীজ ইন এর ভিত্তিতে ক্রয় করা কক্ষপথেই স্যাটেলাইটটি প্রদক্ষিণ করবে।

এদিকে, আগামী তিন মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কার্যক্রম শুরু করবে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার থাকবে। এর ২০টি বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য এবং বাকিগুলো ভাড়া দেওয়া হবে। এতে সরকার আশা করছে, বর্তমানে বিদেশি স্যাটেলাইটের ভাড়া বাবদ যে ১৪ মিলিয়ন ডলার ব্যয় হয়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে সেই অর্থ সাশ্রয় হবে।

এছাড়া এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ডিটিএইচ (ডাইরেক্ট টু হোম) সেবা, স্যাটেলাইট টেলিভিশনের সম্প্রচার এবং ইন্টারনেট সুবিধাসহ ৪০টি সেবা পাওয়া যাবে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে শুধু বৈদেশিক মুদ্রাই সাশ্রয় হবে না, সেই সঙ্গে অব্যবহৃত অংশ নেপাল, ভুটানের মতো দেশে এটি ভাড়া দিয়ে প্রতি বছর আয় হবে প্রায় ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বর্তমানে সম্প্রচার ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ বিষয়ে গবেষণার কাজের জন্য বিদেশি স্যাটেলাইটের

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here