কঙ্গনার কপালে ১৫ সেলাই

0
217

জলসা ডেস্ক: শুটিং সেটে গুরুতর আহত হয়েছে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। মণিকর্ণিকা- দ্য কুইন অব ঝাঁসির শুটিং সেটে দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন,‘একটুর জন্য মৃত্যু এড়ালেন কঙ্গনা রানাওয়াত’। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, তলোয়ার চালানোর দৃশ্যের শুটিং করতে করতে কঙ্গনার কপালে তলোয়ারের কোপ পড়েছে। সঙ্গে সঙ্গে কপাল কেটে প্রচণ্ড রক্তপাত হতে থাকায় শুটিং বন্ধ করে তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এই মুহূর্তে তিনি আইসিসিইউতে চিকিৎসাধীন। কপালে ১৫টা সেলাই পড়েছে। পর্যবেক্ষণের জন্য তাকে আগামী কয়েকদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, একটুর জন্য বেঁচেছেন কঙ্গনা কারণ ওই চোট তার খুলির একেবারে কাছাকাছি এসে গিয়েছিল।

ছবির প্রযোজক কমল জৈন জানিয়েছেন, শুটিংয়ে বডি ডাবল ব্যবহার করতে অস্বীকার করেন কঙ্গনা। আগে বহুবার দৃশ্যটি রিহার্সাল হলেও শুটিংয়ের সময়েই ঘটে দুর্ঘটনা। নীহার পাণ্ড্য তার ওপর তলোয়ার দিয়ে হামলা চালান, কঙ্গনার তা এড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু মূহুর্তের গণ্ডগোলে নীহারের তলোয়ার বসে যায় তার কপালে। দুই ভুরুর মাঝখানে গভীরভাবে কেটে গিয়েছে। তবে প্রচণ্ড রক্তপাত ও যন্ত্রণার মাঝেও কঙ্গনা সাহস হারাননি। বারবার ক্ষমা চাওয়া নীহারকে সান্ত্বনা দিয়েছেন তিনি।

চিকিৎসকরা মনে করছেন, অভিনেত্রীর কপালে ওই দাগটি থেকে যাবে। তবে কঙ্গনা তা ছবিতে দেখাতে চান। ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ যোদ্ধা ছিলেন, তার কপালে তলোয়ারের দাগ তার গৌরব বাড়ায় বই কমায় না। বলেছেন বলিউডের কুইন।

তবে ছবির পর কসমেটিক সার্জারি করতে পারেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here