করোনা; ঝিনাইদহে পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩০, মৃত্যু ৪!

0
58

জাহিদুর রহমান তারিক, স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহে পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে আবারো বেড়েছে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় ২’শ ৩০ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে। এছাড়ও গত ২৪ ঘন্টায় ১জন করোনায় আক্রান্ত ও ৩ জন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। জেলায় মোট মৃত্যু বেড়েছে ১০৮জনে। এছাড়াও সদর হাসপাতালে ৪০ জন ডাক্তারের বিপরীতে কর্মরত আছেন ২০জন। ৭৫জন নার্সের বিপরীতে ৭৪জনসহ অনান্য জনবলও সংকট। সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য মতে জানাযায়, জেলায় নতুন করে ২৩০ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৯৯জন, শৈলকুপায় ২৭ জন, হরিণাকুন্ডুতে ১৮ জন, কালীগঞ্জে ৪৫ জন, কোটচাঁদপুর ২১জন ও মহেশপুরে ২০জন আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়াও সদর হাসপাতালসহ পাঁচ উপজেলায় নতুন করে করোনা ইউনিটে ৬৭জন ভর্তি হয়েছে। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম ঢাকা পোস্টকে জানান, কুষ্টিায়া ল্যাব থেকে গত ২৮,২৯ ও ৩০ জুনের নমুনা ঢাকাতে পাঠিয়েছিলো। যারফলে নমুনার ফলাফল আসতে একটু বিলম্ব হওয়ায়, রির্পোট গুলো একসাথে আসায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ২৩০ জনে দাড়িয়েছে। তবে জেলাতে করোনা আক্রান্তের হার এখনো কম আছে। আক্রান্তের হার ৩৮ দশমিক ৯১ ভাগ। সবমিলে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৫ হাজার ২০ জনে। এ ছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১ জন ও উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে ৩ জন। জেলায় মোট মৃত্যুু বেড়েছে ১০৮ জনের। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের তত্ববধায়ক ডা: মোঃ হারুন আর রশিদ জানান, আকের করোনা অবস্থা খুবই ভয়াবহ। সদর হাসপাতালে করোনা ইউনিটে মোট ১৩৩জন ভর্তি আছে। এরমধ্যে ৬৭জন করোনা পজেটিভ ও উপসর্গ নিয়ে ৬৬ জন ভর্তি আছে। আমাদের হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দিতে খুবই সমস্যা হচ্ছে। ৪০ ডাক্তারে পরিবর্তে মাত্র ২০ জন কর্মরত আছেন। কর্মরত নার্সও ১জন কম এছাড়াও হাসপাতালে কর্মতর অনান্য জনবল কম আছে ৩৫ শতাংশ। তবে খুশির খবর হলো গতকাল ৫ জুলাইয়ে মন্ত্রনালয় থেকে আমাদের সদর হাসপাতালে ১৫জন ডাক্তার পোস্টিং দিয়েছে। আশাকরি আগামী একসপ্তাহের মধ্যে তারা এখানে যোগদান করবেন।