কানের গালিচায় ফরাসি সৌরভ

0
295

জলসা ডেস্ক : কানের ৭০তম আসর এখন তারার মেলা। বিশ্ব চলচ্চিত্রের সম্মানজনক এ আসর কাল আলোকিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী নিকোল কিডম্যান, ২০১৪ সালে ‘বার্ডম্যান’ ছবির জন্য অস্কারজয়ী নির্মাতা আলেজান্দ্রো গঞ্জালিন ইনারিতু, কোরিয়ান অভিনেতা কৌন-হাই হো নহসহ অনেকের উপস্থিতিতে। কিন্তু সব ছাপিয়ে কানের লালগালিচা কাল ছেঁয়ে গিয়েছিল ফরাসি সৌরভে।
লালগালিচায় দ্যুতি ছড়াতে কাল গৌরবজনক এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কিংবদন্তি ফরাসি নির্মাতা ও তারকারা। এর মধ্যে অন্যতম ছিলেন কিংবদন্তি নির্মাতা, অভিনেতা ও চিত্রনাট্যকার জ্যাঁ লুই ট্র্যানটিনিয়ঁ। ১৯৬৯ সালের কানে সেরা নির্মাতার পুরস্কার অর্জন করেছিলেন ৮৬ বছর বয়সী এ তারকা। গতকাল কানের সেরা চলচ্চিত্র বিভাগে প্রদর্শিত ‘হ্যাপি এন্ড’ ছবির সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তিনি। এ অনুষ্ঠানে ছিলেন ফ্রান্সের অনিন্দ্য সুন্দর অভিনেত্রী ইজাবেলে হুপার্ট। এ ছাড়াও ছিলেন ফরাসি অভিনেত্রী সিলিন স্যালেতি, অভিনেতা পাইরি ডিলাডনচ্যাম্পস ও মিথেও কাসোভিজ। ‘হ্যাপি এন্ড’ ছবির কলাকুশলী হিসেবে গতকাল সৌরভ ছড়ান তারা। ফরাসি নির্মাতা মাইকেল হ্যাঙ্ক পরিচালিত ‘হ্যাপি এন্ড’ ছবির প্রেক্ষাপট ইউরোপের শরণার্থী মানুষের বিভিন্ন সংকট নিয়ে।
একটি পরিবারের গল্প হলেও দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ছবিটির নেপথ্যে ফুটে উঠেছে। কানের সেরা ছবির কাতারে এটি বিশেষ আলোচনার সৃষ্টি করেছে। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইজাবেলে হুপার্ট। জ্যাঁ লুই ট্র্যানটিনিয়ঁ এ ছবিতে অভিনয় করেছেন জর্জ লরেন্ট চরিত্রে। এ ছবিতে আরও আছেন ব্রিটিশ তারকা টবি জোনস। ইউরোপের অভিবাসন সংকট এ ছবির মূল প্রেক্ষাপট।
‘হ্যাপি এন্ড’ ছবির পাশাপাশি ফ্রান্সের আরেক নির্মাতা এন্ড্রি টেকিনের ছবি ‘গোল্ডেন ইয়ার্স’। মা ও পুত্রের নাটকীয় গল্প নিয়ে নির্মিত এ ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিলিন স্যালেতি ও পাইরি ডিলাডনচ্যাম্পস।
ফরাসি ছবির পাশাপাশি দক্ষিণ কোরিয়ার ‘জেও-হু’ ছবিটি দর্শকদের মনোযোগ আকর্ষণ করে। হং সাং শো পরিচালিত এ ছবির ইংরেজি নামকরণ করা হয়েছে ‘দ্য ডে আফটার’। ছবিটির গল্প গড়ে উঠেছে বংওয়াং নামের ছোট প্রকাশকের জীবন নিয়ে। সদ্য বিয়ে বিচ্ছেদের পর অন্য নারী আসক্তির আগেই একদিন তিনি খুঁজে পান স্ত্রীর রেখে যাওয়া এক নোট। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কোরিয়ার অভিনেত্রী কিম মিন হি, জো-আন গি, কিম স্যায় ব্যায়ক এবং অভিনেতা নোন হ্যায় হো। ছবিটির প্রিমিয়ার প্রদর্শনীতে জমকালো পোশাকে উপস্থিত হয়েছেন তারা।
কানের গতকালের লালগালিচায় পা রেখেছিলেন অস্কারপ্রাপ্ত মেক্সিকান নির্মাতা আলেজেন্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারিতু। তার সঙ্গে যোগ দেন কিংবদন্তি চিত্রগ্রাহক ইমানুয়েল লুবেস্কি। সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ইনারিতুর ‘কার্নে ওয়াই অ্যারেনা’ ছবিটি ছিল এবারের উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ। ইংরেজি ভাষায় ছবিটির নামকরণ হয়েছে ‘ভার্চুয়ালি প্রেজেন্ট, ফিজিক্যালি ইনভিজিবল’। সংবাদ সম্মেলনে গুণী এ নির্মাতার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটিশ প্রযোজক ম্যারি পেরেন্ট, অভিনেতা রাফি ক্যাসিডি, আইরিশ অভিনেতা ব্যারি কিওগান, গ্রিক নির্মাতা ওর্গস ল্যান্থিমস, অভিনেত্রী নিকোল কিডম্যান, সানি সুলজিক প্রমুখ। এ বছর কানের সিনেফন্ডেশন সেকশনে জায়গা করে নিয়েছে ‘ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া’র তৃতীয় বর্ষের পায়েল কাপাডিয়ার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চ্িচত্র ‘আফটারনুন ক্লাউডস্’।
এই বিভাগেই গত বছরে জায়গা করে নিয়েছিল সত্যজিৎ রায় ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের ছাত্র সৌরভ রাইয়ের ‘গুড়’। কানের সিনেফন্ডেশন সেকশনে এই বছর জমা পড়ে ২ হাজার ৬০০ স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। এর মধ্যে ১৬টি শর্ট ফিল্ম বেছে নিয়েছে সিনেফন্ডেশন বিভাগ। ১৬টি শর্টের মধ্যে ১৪টি ‘ওয়ার্ক অব ফিকশন’ এবং দুটি অ্যানিমেটেড ছবি। পায়েল কাপাডিয়ার ১৩ মিনিটের ‘আফটারনুন ক্লাউডস্’ তাদের মধ্যে অন্যতম। ৬০ বছরের এক বিধবা মহিলার গল্প নিয়ে নির্মিত ‘আফটারনুন ক্লাউডস্’। বিধবা মহিলার সঙ্গে থাকেন নেপালি পরিচারিকা মালতী। একদিনের দুপুর বেলার গল্প নিয়েই ছবির মূল প্রেক্ষাপট। এতে অভিনয় করছেন ঊষা নায়েক এবং ত্রিমালা অধিকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here