কালিয়ায় নৌকার কার্যালয়ে আগুন, ককটেল বিস্ফোরণ

0
151

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের কালিয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. ওয়াহিদুজ্জামান হীরার বড়কালিয়া নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে অজ্ঞাত দুবৃর্ত্তরা। রোববার আনুমানিক রাত ২টার দিকে পৌরসভার বড়কালিয়াস্থ ২নং ওয়ার্ডের নির্বাচনী কার্যালয়ে দুবৃর্ত্তরা আগুন দিলে টাঙ্গানো নৌকা প্রতীক, নির্বাচনী পোষ্টার ও কাপড় পুড়ে যায়। এছাড়া দুবৃত্তরা ঘটনাস্থলে ৩/৪টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই রাতেই ঘটনাস্থল থেকে আরও ২টি তাজা ককটেল ও ২টি ছ্যান দা পুলিশ জব্দ করেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানায়, নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন ধরানোর পর ৩/৪টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় দুবৃর্ত্তরা। এছাড়া চলে যাওয়ার সময় কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ ঘোষকে উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় অশ্রাব্য ভাষায় গালি-গালাজ করে। অপরদিকে, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মুশফিকুর রহমানের পক্ষে শ্লোগান দিতে দিতে দুবৃত্তরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।
এ বিষয় আ’লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. ওয়াহিদুজ্জামান হীরা বলেন, ‘এমপি করিরুল হক মুক্তির স্ত্রী চন্দনা হক ও মুশফিকুর রহমান লিটনের নির্দেশে স্বতন্ত্র মেয়র প্রাথীর লোকজন আমার নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন বলে আশা করছি।’
এ বিষয় স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মুশফিকুর রহমান লিটন বলেন, ‘আ’লীগের নির্বাচনী কার্যালয় আমি বা আমার লোকজন আগুন দেয়নি। আমি এ ঘটনার নিন্দা জানাই। পাশাপাশি এ বিষয় নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু তদন্তের দাবি করি।’
কালিয়া থানার ওসি মো. কণি মিয়া জানান, ‘খবর পেয়ে পুলিশ বড়কালিয়াস্থ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এ সময় ঘটনাস্থলে পড়ে থাকা দু’টি ককটেল সদৃশ্য বস্তু উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল। সূত্রে জানা যায়, আগামি ৩০ জানুয়ারি এ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।