কালীগঞ্জের আফতাবকে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

0
252

স্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার লুচিয়া গ্রাম থেকে মো.আফতাব নামে এক ব্যক্তিকে পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এরপর থানা হাজতে একবার দেখার পর রাতে খাবার দিতে গিয়ে তাকে আর পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ পরিবারের।

মঙ্গলবার বিকাল ৩টার দিকে কালীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ করেছেন আফতাবের স্ত্রী রুবিনা খাতুন। তবে আফতাব নামে পুলিশ কাউকে আটক করেনি বলে জানান, কালীগঞ্জ থানার ওসি আমিনুল ইসলাম।

নিখোঁজ আফতাবের ছেলে রাহুল (১০) ও মেয়ে সোনিয়া (২৩) নামে দুটি সন্তান আছে। আফতাবের স্ত্রী রুবিনা খাতুন বলেন, দএএসআই তারিকুল ইসলামসহ দুদজন পুলিশ বাড়িতে এসে আমার স্বামীকে থানায় নিয়ে যায়।

এর পরপরই আমরাও থানায় গিয়ে তাকে থানা হাজতে দেখতে পাই।দ তিনি বলেন, দপরে ওইদিন রাতে খাবার দিতে গেলে কর্তব্যরত এক পুলিশ জানান-আমরা তোমার স্বামীকে থানায় আনি নাই। তোমার স্বামীকে ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশ নিয়ে গেছে।

তবে ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশ কার্যালয়ে খোঁজ নিলে আফতাব নামে কাউকে তারা আটক করেনি বলে জানায়। মোঃ আফতাবের পরিবারের লোকজন ধারনা করছে, পুলিশ তাকে হত্য করে রাতে কোন স্থানে ফেলে রাখতে পারে, অথবা এএসআই তাকে অন্য কোন স্থানে আটকিয়ে রেখে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতে পারে হত্যার ভয় দেখিয়ে । গত ৫ দিনে তার সন্ধার মেলাতে পরেছে না পরিবারের লোকজন ।

আফতাবের নামে তিনটি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে দুই মামলায় তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিনে আছেন। আর একটি মামলায় তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট রয়েছে। এ বিষয়ে কালীগঞ্জ থানার এএসআই তারিকুল ইসলাম বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। ওসি স্যারের সঙ্গে কথা বলে দেখতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here