কুষ্টিয়া পলিটেকনিকে দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত ১২, হল অনির্দিষ্টকাল বন্ধ

0
20

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে দুর্বৃত্তদের হামলায় ১২ ছাত্র আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে লালন শাহ আবাসিক হলে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় হলের আসবাবপত্র ও ছাত্রদের ব্যবহৃত জিনিসপত্র ভাঙচুর করা হয়।
এদিকে হামলা ঘটনার পর আবারও সহিংসতা এড়াতে পলিটেকনিকের তিনটি আবাসিক হল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে।

ছাত্ররা জানান, দুপুর ১টার দিকে দুর্বৃত্তরা লালন শাহ আবাসিক হলে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। এ সময় ছাত্ররা বাধা দিতে গেলে দুর্বৃত্তরা তাদের মারধর করে। এতে হলের ১২ শিক্ষার্থী আহত হন। তাদের মধ্যে আব্দুল্লাহ হুসাইন নামে এক ছাত্রকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয় হয়। এছাড়া দুর্বৃত্তরা হলের আসবাবপত্র, ছাত্রদের দুটি ল্যাপটপ ভাঙচুরসহ বেশ কয়েকটি ল্যাপটপ ছিনিয়ে নেয়। ৩০-৪০ মিনিট হামলা চালিয়ে দুর্বৃত্তরা ক্যাম্পাস ত্যাগ করে। পরে খবর পেয়ে র‌্যাব-পুলিশের টিম ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলার সঠিক কারণ পলিটেকনিক কর্তৃপক্ষ জানাতে পারেনি।

এদিকে ঘটনার পর দুপুরে একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভায় ক্যাম্পাসের সার্বিক শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষাসহ হামলা পরবর্তী সহিংসতা এড়াতে পলিটেকনিকের ছাত্রদের লালন শাহ ও মীর মশাররফ হোসেন ও ছাত্রীদের রাবেয়া বশরী হল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ২১ জুন (মঙ্গলবার ) সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীকে হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ মনির হোসেন জানান, একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্তে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের তিনটি আবাসিক হল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলম জানান, পলিটেকনিকে হামলা ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। কেউ যাতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে না পারে সেজন্য সতর্ক রয়েছে পুলিশ।