কৃষিতে বৈপ্লবিক পরিবর্তনে আধুনিক যন্ত্রপাতির বিকল্প নেই : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

0
84

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, কৃষিতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে হলে আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতির বিকল্প নেই। এর ব্যবহার বাড়াতে হবে। কৃষি যন্ত্রপাতির ব্যবহারে কৃষককে উৎসাহিত করতে হবে।
এগ্রিটেক বাংলাদেশ এক্সপো’র আয়োজনে যশোরে ‘ভিশন-২০২১ এ এসে ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নে কৃষির বাস্তবতা’ শীর্ষক গোলটেলি পর্যালোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
যশোরে বৃহস্পতিবার থেকে তিনদিনব্যাপী কৃষি ও প্রাণিজ সম্পদ প্রযুক্তির প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। এদিন দুপুরে যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের কনফারেন্স রুমে তিনদিনব্যাপী এই প্রর্দশনীর উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। প্রর্দশনীর উদ্বোধনের পাশাপাশি কনফারেন্স রুমে গোলটেবিল পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য।
তিনি আরো বলেন, প্রচারাভিযান ও প্রদর্শনীর মাধ্যমে এর সুফল সম্পর্কে সাধারণ কৃষকদেরকে সচেতন করতে হবে। কৃষক যদি উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য না পায়, তাদের অর্থের সংস্থান না থাকে, তাহলে আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতি কৃষকের হাতে পৌঁছবে না। কৃষকদের হাতে সহজলভ্যভাবে কৃষি যন্ত্রপাতি পৌঁছানোর ব্যবস্থা করতে হবে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন এসিআই লিমিটেডের (এগ্রিবিজনেস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফএইচ আনসারী, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম, মেটালের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শাহিদ জামিল, জেলা মৎস্য হ্যাচারি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহিদুর রহমান গোলদার, ফুল ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম, চৌগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান ড. মোস্তাফিজুর রহমান, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সমিতির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও জেলার সভাপতি শাকের আলী, মণিরামপুর উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা হরিপদ সাহা। সঞ্চালনায় ছিলেন এগ্রোটেকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাশেদুল হাসান ও সুলতান মাহমুদ। প্রর্দশনীতে বিভিন্ন কোম্পানির ৩৭টি স্টল বসেছে।