কেশবপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোধে বুধবার থেকে সপ্তাহব্যাপী লকডাইন শুরু

0
36

কেশবপুর (যশোর) থেকে : যশোরের কেশবপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোধে ২৩ জুন বুধবার থেকে সপ্তাহব্যাপী লকডাইন শুরু হয়েছে। লকডাইন কার্যকর করতে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ২২ জুন সকালে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, ব্যাবসায়ী ও সুধীজনের সমন্বয়ে এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরুফা সুলতানা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ আলমগীর হোসেন, থানার অফিসার ইনচার্জ বোরহান উদ্দীন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার রিজিবুল ইসলাম, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার তরিকুল ইসলাম, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, সুফলাকাটি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ মাষ্টার, মঙ্গলকোট ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন, সাগরদাঁড়ী ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত, পাঁজিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুল, ত্রিমোহিনী ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান আনিস, কেশবপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দীন আলা, হাসানপুর ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর প্রভাষক জুলমাত আলী, মজিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর পলাশ, গৌরীঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব, ব্যাবসায়ী নছির আহম্মেদ গাজী, উপজেলা বাস মিনিবাস ও ট্রক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুব্রত মুখার্জী উজ্জ্বল, উপজেলা প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক জাকির হোসেন সবুজ প্রমুখ।
সভায় কেশবপুর উপজেলায করোনা সংক্রামন বৃদ্ধি পাওয়ায় ২৩ জুন হতে ৩০ জুন পর্যন্ত একসপ্তাহ লকডাউন ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। উক্ত লকডাউনে জরুরি সেবা যেমন ওষুধের দোকান, হসপিটাল খোলা থাকবে এবং কাঁচা বাজার, মাছবাজার-সহ নিত্যপ্রয়েজনীয় দোকান দুপুর ১২ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। অন্য সকল কিছু বন্ধ থাকবে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূল। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের না হওয়ার জন্য বলা হয়েছে। এ্যাম্বুলেন্স ও পন্যবাহী গাড়ী ছাড়া সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ থাকবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন বলেন, লকডাউন চলাকালে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জেল জরিমানার উপর গুরুত্ব দেওয়া হবে।