কেশবপুরে জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ইটভাটা বন্ধের প্রতিবাদে মানববন্ধন, সমাবেশ

0
245

শেখ শাহীন,কেশবপুব,যশোর : যশোরের কেশবপুর উপজেলার শ্রীরামপুর বাজারের পাশে ইট ভাটা স্থাপানে ব্যর্থ হওয়ার দেড় মাসের ব্যবধানে ওই সমস্ত ভাটা মালিকরা এবার প্রতাপপুর বাজারের পাশে জনবসতিপূর্ণ এলাকার ৩ ফসলি জমি গ্রাস করে ইটভাটা স্থাপনের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এলাকার রাস্তাঘাটের ক্ষয়ক্ষতি, ফসলহানি, ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া বিঘœঘটাসহ পরিবেশের মারাতœক বিপর্যয়ের আশঙ্কায় ফুঁসে উঠেছে এলাকাবাসি। ইট ভাটা বন্ধের দাবিতে ৩ গ্রামের শতশত নারী পুরুষ, শিক্ষার্থী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।
জানা গেছে, গত মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের প্রতাপপুর গ্রামে মানুষের প্রয়োজনে ছোট্ট একটি বাজার গড়ে উঠেছে। বাজারটিতে প্রতিদিন হাট বসে। এ বাজারে একটি প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও একটি দাখিল মাদ্রাসা রয়েছে। এর উত্তর পাশে মজিদপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও চৌরাস্তা মোড়ে কেশবপুর পৌরসভার বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্যে দুটি গভীর নলকূপ স্থাপনের কাজ চলছে। এর চারপাশে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা ছাড়াও সব জমিই ৩ ফসলি। কেশবপুর ভায়া সাগরদাঁড়ি ও মঙ্গলকোট ভায়া সরসকাটি সড়কের সংযোগ স্থান এই চৌরাস্তার দক্ষিণ পাশে কেশবপুর শহরের দুই প্রভাবশালী মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী বুলু বিশ্বাস ও ইখতিয়ার হোসেন ও উত্তর পাশে পাটকেলঘাটা থানার সেনপুর গ্রামের হাসান আলী পৃথকভাবে দুটি ইট ভাটা স্থাপনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এ রাস্তা দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন শিশু শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে যেতে হয়। এলাকাবাসি অভিযোগ, চৌরাস্তা মোড়ে ভাটা স্থাপিত হলে প্রতিনিয়ত ভাটার গাড়ি চলাচলের কারণে ধুলা বালিতে সাধরণ মানুষ সর্দি-কাশি, এলার্জিসহ নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া পরিবেশের মারাতœক বিপর্যয়সহ ভাটার কার্বন জাতীয় আবহাওয়ার কারণে এলাকায় ব্যাপক ফসলহানি ঘটবে।
ভাটা স্থাপন আইন-২০১৩ এর ৮ নং অনুচ্ছেদে উলে¬খ করা হয়েছে, আবাসিক, সংরক্ষিত বা বাণিজ্যিক এলাকা, কৃষি জমি, পরিবেশ বিপর্যয়, ফসলের ক্ষতি সাধন বা ব্যক্তি মালিকানাধীন বাগান দখল করে কোন ইটভাটা স্থাপন করা যাবে না। অথচ ভাটা মালিকগণ এ আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ওই বাজারের উত্তর পাশে ইটভাটা স্থাপন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।
প্রতাপপুর নিভারানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া জানান, মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী বুলু বিশ্বাস ও ইখতিয়ার হোসেন গত ২৮ ফেব্র“য়ারী শ্রীরামপুর বাজারে ইট ভাটা স্থাপনার কাজের উদ্বোধন করে। গ্রামবাসির বাঁধার কারণে শেষ পর্যন্ত তারা গুটিয়ে নিতে বাধ্য হন। বর্তমান তারা প্রতাপপুর চৌরাস্তা মোড়ে ভাটা স্থাপনার ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। এরই প্রতিবাদে গত ১১ ফেব্র“য়ারী আশপাশের ৩ গ্রামের শতশত নারী পুরুষ, শিক্ষার্থী ইটভাটা বন্ধের দাবিতে প্রতাপপুর বাজারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া, শাহীনুর রহমান শাহীন, এরশাদ আলী, রাকিবুল হাসান বাবু প্রমুখ। সমাবেশ থেকে ওই স্থানে ভাটা স্থাপনার কাজ বন্ধ না হলে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here