কেশবপুরে বিয়ের দাবীতে এক প্রেমিকা ৬ দিন যাবৎ প্রেেিকর বাড়িতে অবস্থান

0
198

নিজস্ব প্রতিবেদক,কেশবপুর(যশোর) :যশোরের কেশবপুরে বিয়ের দাবীতে এক প্রেমিকা ৬ দিন যাবৎ প্রেেিকর বাড়িতে অবস্থান করছে। গত ৬ দিনেও এলাকার কোন জন প্রতিনিধি বা সমাজ পতিরা শুনেও ঘটনাস্থলে আসেনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে জানাগেছে,উপজেলার টিটা বাজিতপুর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের নবম শ্রেণীতে পড়–য়া এক ছাত্রী পার্শ্ববর্তী হাসানপুর(মাইলবগা) গ্রামের মৃত সোহারাব শেখের ছেলে রায়হান শেখ এর সাথে দীর্ঘ দিন ধরে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই ছাত্রী জানায়, রায়হান তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ২০ মে সকালে তাকে রায়হানের বাড়িতে নিয়ে আসে। এর পর থেকেই রায়হান বাড়ি থেকে চলে গেছে। ওই সময় থেকেই সে বিয়ের দাবীতে রায়হানের বাড়িতে আবস্থান নিয়ে রয়েছে। সে আরো জানায় প্রতিবেশীরা খাবার দিচ্ছে তাই খেয়ে দিনাতিপাত করছি। বাড়িতে আনার পর রায়হানের মা তাকে মারধর করেছে বলে জানায়। বাড়ির নিকটে রাস্তার পাশে বসে থাকা রায়হানের মা রেহেনা বেগম বলেন, তার ছেলে (রায়হান) ওই মেয়েকে নিয়ে আসেনি । গত ১মাস আগে রায়হান পল্লী বিদুৎ এ কাজ করতে গেছে।তাকে মারধর করা হয়নি। তার ভাসুররা ওই মেয়েকে দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। রায়হানের চাচা মোনতাজ আলি,শেখ ও ইনতাজ আলি শেখ বলেন, রায়হানের সাথে ওই মেয়ের বিয়ে হোক তারা চায়। তাদের বিরুদ্ধে কোন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছেনা। মেয়েটির ভাই জাহিদুল ইসলাম বলেন, ২৫মে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনাটি নিয়ে বসাবসির কথা রয়েছে।
এলাকার মেম্বার আকামত আলি বলেন,তিনি ঘটনা শুনেছেন। কিন্তু সেখানে যাননি। ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুলমাত আলি জানান, তিনি ঢাকায় ছিলেন। ঢাকা থেকে ফিরে লোকমুখে মেয়েটির ওই বাড়িতে আবস্থানের কথা শুনেছি। মেয়ে বা ছেলে পক্ষ থেকে তাকে কিছু জানানো হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here