কেশবপুরে বোরো ক্ষেতে ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধে কৃষি অফিসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বন্ধ ঘোষনা

0
318

নিজস্ব প্রতিবেদক,কেশবপুর(যশোর) : যশোরের কেশবপুরে ধানের ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধে ছয়টি ক্যাম্পেইন দল উপজেলা ব্যাপী কাজ শুরু করেছে। লক্ষমাত্রা থেকে অতিরিক্ত বোরো আবাদ হওয়ায় কৃষকদের আবাদকৃত ক্ষেতে রোগ প্রতিরোধে কৃষি বিভাগ মাঠে মাঠে ক্যাম্পেইন শুরু করায় কৃষকদের ভেতর ব্যাপক সাড়া পড়েছে। চৈত্রের প্রথম সপ্তায় দিনে গরম রাতে শীতের প্রভাবে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কিছু ক্ষেতে বোরো ধানে ব্লাস্ট রোগ দেখা দেয়। এ রোগ প্রতিকারে ২৬ জন উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা ও ২১ জন কৃষি ডিপ্লোমা পড়–য়া ছাত্র ছাত্রীসহ ৪৭ জন ছয়টি টিমে ভাগ হয়ে কৃষি অফিস থেকে ক্যাম্পেইন দল গত বুধবার থেকে উপজেলা ব্যাপী কাজ শুরু করে। এ কারণে উপজেলা কৃষি অফিসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে।
উপজেলার কৃষি বিভাগ জানায়, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় বোরো আবাদের জন্য ১৫ হাজার ৯১৪ হেক্টর জমি নির্ধারন করা হয়। আবাদ হয়েছে ১৫ হাজার ৯৩০হেক্টর জমি। এবার সময় মত বীজ ,সার কৃষকের হাতের নাগালে থাকায় বোরোর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। ধানের মুল্য বৃদ্ধির কারণে লক্ষমাত্রার অধিক জমিতে বোরো আবাদ হওয়ায় ৭৯ হাজার ৬৫০ মে;টন ধান উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যে প্রায় ৬০ ভাগ ক্ষেতের ধান গাছে শীষ বেরিয়েছে। বর্তমানে এ উপজেলায় সপ্তাহ ব্যাপী চৈত্রের প্রথম সপ্তায় দিনে গরম রাতে শীতের প্রভাব চলছে। এ বৈরী আবহাওয়ায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কৃষকের কিছু বোরো ক্ষেতে ব্লাস্ট রোগ দেখা দিয়েছে। এমতাবস্তায় কৃষি অফিস রোগ প্রতিরোধে কৃষক সচেনতাকরণ পরামর্শ প্রদানে সকাল সন্ধ্যা মাঠে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে। গত কাল শুক্রবার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মহাদেব চন্দ্র সানার নের্তৃত্বে ক্যাম্পেইন দল উপজেলার মুলগ্রামের বিভিন্ন বোরো ক্ষেত পরিদর্শন করে কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করেন। এ রোগের লক্ষন ধান গাছে প্রথম পত্রফলকে অতি ছোট ডিম্বাকৃতির দাগ পড়া,শীষ বের হওয়ার সময় শীষের গোড়ায় কালোদাগ পড়ে। শেষে শীষ সাদা হয়ে চিটা হয়ে যায়।সময় মত ছত্রাকনাশক  করে এ রোগ সহজেই দমন করা যায়।
এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মহাদেব চন্দ্র সানা জানান,এ রোগ প্রতিকারে ২৬ জন উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা ও ২১ জন কৃষি ডিপ্লোমা পড়–য়া ছাত্র ছাত্রীসহ ৪৭ জনকে ছয়টি টিমে ভাগ করে কৃষকদের সচেতন করতে ক্যাম্পেইন দল গত বুধবার থেকে উপজেলা ব্যাপী কাজ শুরু করেছে। তিনি আরো জানান, উপজেলার কিছু কিছু ক্ষেতে এ রোগ দেখা দেওয়ায় এর প্রতিকারে কাজ শুরু করা হয়েছে। আর এ জন্য অফিসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here