খুলনায় স্বেচ্ছাসেবীদের বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা বিষয়ক ১০দিনের প্রশিক্ষন সম্পন্ন

0
78

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা : বন্যপ্রাণী রক্ষা, সংরক্ষন ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে সহযোগীতা প্রদানে কাজ করা খুলনা বিভাগের ৭টি জেলার স্বেচ্ছাসেবীদের “বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা এবং সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধিমালা” শীর্ষক ১০দিনের প্রশিক্ষন মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সম্পন্ন হয়েছে। বন অধিদপ্তরের বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগ- খুলনা’র আয়োজনে এবং বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী সংরক্ষন ও আবাসস্থল উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থায়নে খুলনার সোনাডাঙ্গা যুব প্রশিক্ষন কেন্দ্রে প্রশিক্ষন অনুষ্ঠিত হয়।
মঙ্গলবার দুপুরে প্রশিক্ষনের সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, খুলনা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নির্মল কুমার পাল। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর- খুলনা’র উপ-পরিচালক মো. মোস্তাক উদ্দীন। বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগ- খুলনা’র কর্মকর্তা ও মৎস্য বিশেষজ্ঞ মো. মফিজুর রহমান চৌধুরী’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ওয়াসিউল ইসলাম ও রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. লুৎফর পারভেজ।
এরআগে, ১০ দিনের প্রশিক্ষনে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা, বন্যপ্রাণী অপরাধ, বন্যপ্রাণীর প্রকারভেদ, বাংলাদেশে বন্যপ্রাণীর অবস্থান, জীব-বৈচিত্র’র গুরুত্ব, বন্যপ্রাণী সম্পর্কে ধারনা ও আন্তর্জাতিক চুক্তি, পরিবেশে পাখি; হাতি; বাঘ; সাপ; কুমির; তিমি; ডলফিন ও শকুন’র গুরুত্ব; এসম্পর্কিত আইন এবং বিধিমালা সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষন প্রদান করেন, উপ-প্রধান বন সংরক্ষক (অব.) ও বিশিষ্ট বন গবেষক ড. তপন কুমার দে, খুলনা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নির্মল কুমার পাল, খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক মিহির কুমার দো, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ওয়াসিউল ইসলাম, ডব্লিউসিএস’র কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ড. জাহাঙ্গীর আলম, প্রাণীবিদ্যা বিভাগ’র অধ্যাপক (অব.) ড. বিবেকানন্দ বিশ্বাস, ফুলতলা উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. অরুন কান্তি মন্ডল, সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগ’র বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মহসিন হোসেন, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ’র বন কর্মকর্তা মো. বেলায়েত হোসেন, খুলনা বন বিভাগের বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র সংরক্ষণ কর্মকর্তা তন্ময় আচার্য্য, মৎস্য বিশেষজ্ঞ ও প্রশিক্ষন সমন্বয়কারী মো. মফিজুর রহমান চোধুরী, ভেনোম গবেষক ও সর্প বিশেষজ্ঞ মো. বোরহান বিশ্বাস রুমন, বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের ওয়াইল্ডলাইফ ইন্সপেক্টর মো. রাজু আহমেদ এবং যুব প্রশিক্ষন কেন্দ্র’র ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর এইচ.এম. নুরুজ্জামান।
প্রশিক্ষনকালে স্বেচ্ছাসেবীদের বন্যপ্রাণী উদ্ধার, পুনর্বাসন, চিকিৎসা এবং অবমুক্ত করার উপর প্রাকটিক্যাল প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়। ২১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষনে খুলনা বিভাগের ৭টি জেলা থেকে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠন থেকে ৩০জন স্বেচ্ছাসেবী অংশগ্রহন করে। প্রশিক্ষন শেষে স্বেচ্ছাসেবীদের মাঝে সনদপত্র বিতরন করা হয়। এছাড়া, প্রশিক্ষনের সমাপনী দিনে বিশেষ মূল্যায়ন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ স্বেচ্ছাসেবী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্রী ফরহানা লিয়া, তালার সাংবাদিক বি.এম. জুলফিকার রায়হান ও খুলনা বিএল কলেজের ছাত্র পার্থ প্রতিম রায়কে পুরস্কার প্রদান করা হয়।