চরিত্রহীন সেই জাকরিয়ার ভাকুকঘর ডিগ্রি মাদ্রসার সভাপতি হতে দৌড়-ঝাপ

0
74

সভাপতি হওয়ার আগেই সভাপতিে চেয়ার দখল করে ভার প্রাপ্ত অধ্যক্ষকে হুমকি
কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের কেশবপুর উপজেলার ভালুকঘর আজিজিয়া ফাযিল মাদ্রাসার সভাপতি হতে আবারও দৌড়-ঝাপ শুরু করেছেন রাজাকারে ভ্রাতুষপুত্র সেই ফারুক হোসেন জাকারিয়া। যার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারি,নিয়োগ বানিজ্যসহ বহু অপকর্মের রয়েছে। মাদ্রাসার গভর্ণিংবডি গঠনে আরবি বিশ^ বিদ্যালয়ের প্রবিধান থাকলেও তিনি তা মানছেন না। হুমকি ধামকি এবং প্রভাব খাটিয়ে সভাপতির পদ বাগানোর চেস্টা করছেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষেভের সৃস্টি হয়েছে। ভালুকঘর গ্রামের মেম্বর শহর আলী গাজী ও আব্দুল জব্বার মোল্যাসহ এলকাবাসী জানান, ভালুকঘর ফাযিল মাদ্রাসা টি আমাদের এলাকার ঐতিহ্যবাহী একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই ধর্মীয় প্রতিষ্টানের বর্তমান কমিটির মেয়াদ থাকার পর ও এলাকার বিতর্কিত ধর্ম ও সমাজ বিরোধী একাধিক নারী কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ফারুক হোসেন জাকারিয়া কথিত ডিও লেটারের গল্প শুনিয়ে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন।গভর্ণিং বডির নির্বাচিত অভিভাবক সদস্য হায়দার আলী জানান, বর্তমান কমিটির মেয়াদ ২৫ মার্চ পর্যন্ত আছে। আমরা বিশ^বিদ্যালয়ের প্রবিধান অনুযায়ী কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করেছি। তিনি গণতান্ত্রিক পন্থায় কমিটি গঠনে বাধা সৃস্টি করছেন। অভিভাক সদস্য পদে নির্বাচনের তারিখ ঘোষনার পর তার পক্ষের লোকজন মনোনয়নপত্র ক্রয় করে দাখিল করেন এবং তা বৈধও করা হয়। ভোটের কয়েক দিন আগে তারা আদালতে গিয়ে নির্বাচনে নিষেধজ্ঞা আনেন। বিজ্ঞ আদালত শুনানী শেষে তাদের আরজি না মঞ্জুর করে নির্বচন করার নির্দেশনা দেন। এরই মধ্যে জাকারিয়া আদালতের নিদের্শ উপেক্ষা করে মাদ্রসায় গিয়ে সভাপতির চেয়ার দখল করে বসেন এবং কমিটি গঠনের কাগজপত্র নেওয়ার জন্য চাপ সৃস্টি করেন।সভাপতি হওয়ার আগেই সভাপতির চেয়ার দখল করে বসা এবং প্রতিষ্ঠান প্রধানকে হুমকিধামকি দেয়ার বিষয় নিয়ে বিরু প্রক্রিয়া সৃস্টি হয়েছে। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্রিা বলেছেন ধর্মীয় প্রতিষ্টানে এ ধরনের লম্পট চরিত্র হীন ব্যাক্তিকে সভাপতি হিসাবে তারা কখনও মেনে নেবে না। এ ব্যাপারে ভালুকার মাদ্রাসার অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) আজগর আলী বলেন ফারুক হোসেন জাকারিয়া বিশ^ বিদ্যালয়ের প্রবিধান তোয়াক্কা না করে প্রতিনিয়ত মোবাইল ফোনে এবং রাস্তায় আটকে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে এবং বিধিবহির্ভূতভাবে কাগজপত্র নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। যে কারণে শিক্ষকরা ভীত শংকিত হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, গঠনতন্ত্র মোতাবেক কমিটি করার জন্য আদালত থেকে আমরা ে য নির্দেশনা পেয়েছি সেই আলোকে আগামী বুধবার অভিভাবক পদে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তিনি এব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পুলিশ প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।