চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাসুমের অনুরোধে গণিতবিদ কেপি বসুর বাড়ি সংরক্ষন ও পরিদর্শণে ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন

0
360

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ হরিসংকরপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাসুমের অনুরোধে গণিতবিদ কেপি বসুর বাড়ি সংরক্ষন ও পরিদর্শণ করেছেন ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি বাড়িটি পরিদর্শণ করেন। এসময় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম, সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ড. খান মোঃ মনিরুজ্জামান, হরিশংকরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাসুম, ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদসহ অন্যানরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় জেলা প্রশাসক বলেন, বিখ্যাত গণিতবিদ কে পি বসুর বসত ভিটা যারা দখল করে রেখেছে তার দ্রুত দখলমুক্ত করা হবে। কেপি বসুর বাড়িটি সংরক্ষনের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে। এছাড়াও দ্রুত প্রতœতত্ত অধিদপ্তরে চিঠি লিখে বাড়িটিকে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার ব্যবস্থা করা হবে। ইতিমধ্যে কে পি বসুর এই বাড়িতে সরকারের নিকট সংরক্ষণের দাবী তুলেছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতি বার ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন বাড়িটি ঘুরে দেখতে গেলে হরিসংকর পুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাসুম এলাকার জনসাধারণের প্রানের দাবী জেলা প্রশাসকের নিকট তুলে ধরে। সেই সাথে জেলা প্রশাসকের উপদেষ্টা অথবা আহ্বায়ক করে একটি একটি কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেন। এই প্রস্তাব জেলা প্রশাসক গ্রহণ করে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এই সময়ে জেলা প্রশাসকের সাথে উপস্থিত ছিল ঝিনাইদহের সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাম্মি ইসলাম, সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ড.খান মোঃ মনিরুজ্জামান, সাংবাদিক জাহিদুর রহমান তারিক, পল্লব, ফয়সাল আহামেদ, রকি, সোহাগ, উন্নয়ন ধারা’র নির্বাহী পরিচালক কৃষিবিদ শহিদুল ইসলাম, হারভেস্ট প্লাস বাংলাদেশ এর এআরডিও কৃষিবিদ মুজিবুর রহমান প্রমুখ।
কালীগঞ্জে অসাধানে এমপি আনারের ভাইপো ছাদ থেকে পড়ে নিহত,আহত ১
জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে দাদী-নাতি এক সাথে ছাদ থেকে পড়ে নাতি শিশু ইয়াদ (১৩ মাস) নিহত হয়েছে। মারাত্বক আহত হয়েছেন দাদি মনোয়ারা বেগম (৫০)। নিহত ইয়াদ ঝিনাইদহ ৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারের ভাইপো রিংকু বিশ্বাসের ছেলে। শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার দুপুরে শিশু ইয়াদ তার দাদির সাথে ঘরের বারান্দায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল। বারান্দার গ্রীলের দরজায় হেলান দিলে দু,জনে একসাথে পড়ে যায়। এ সময় তারা দু,জনে পড়ে মারাতœক আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতাল, পরে যশোর সদর হাসপাতালে নেওয়ার পরে ইয়াদ মারা যায়। দাদি মনোয়ারা বেগম যশোর হাসপাাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। কালীগঞ্জ থানার ওসি মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here