চৌগাছার খড়িঞ্চায় মানসিক ভারসাম্যহীন নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

0
94

এস এ সিয়াম,চৌগাছা প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছায় স্বপ্না খাতুন (২৫) নামে এক সন্তানের জননী এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্বপ্না উপজেলার স্বরূপদহা ইউনিয়নের খড়িঞ্চা গ্রামের মৃত আছির উদ্দিনের মেয়ে।

আজ রবিবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে বলে দাবি স্বপ্নার পরিবারের সদস্যদের। বিকেলে চৌগাছা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করে।

নিহতের চাচা স্থানীয় সাংবাদিক শরিফুল ইসলাম শরিফ জানান, মেয়েটি দির্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলো। এর আগেও কয়েকবার সে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছে। সে প্রায় দিনই বাড়ি থেকে পায়ে হেটে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরের চৌগাছা শহর ও ৪ কিলোমিটার দূরের পুড়াপাড়া বাজারে পায়ে হেটে ঘুরে বেড়াতো। রবিবার দুপুরের আগ দিয়ে কোন একসময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে কোন একসময় গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠান।

স্থানীয়রা জানান, মেয়েটি চৌগাছা মৃধাপাড়া মহিলা কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী ছিলো। এইচএসসিতে অধ্যায়নরত অবস্থায় অনন্য সুন্দর মেয়েটিকে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়। একটি সন্তান জন্ম দেবার পর মেয়েটি মানসিক ভারসম্যহীন হয়ে পড়ে। পরে স্বামীর সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর মেয়েটি পরিপাটি পোশাকে প্রায় প্রতিদিনই পায়ে হেটে চৌগাছা শহর ও পুড়াপাড়া বাজারে ঘুরে বেড়াতো। সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে আবার সন্ধ্যার আগেই বাড়ি ফিরত সে। আজ রবিবার দুপুরে তাদের বাড়ির লোকজনের হঠাৎ চিৎকারে স্থানীয়রা গিয়ে দেখেন একটি ঘরে তার লাশ ঝুলছে। পরে পরিবারের লোকজন লাশটি উদ্ধার করে। পরে চৌগাছা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নেয়।

চৌগাছা থানার ডিউটি অফিসার সহকারী এএসআই সাইদুল ইসলাম বলেন লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়নাতদন্তে পাঠানো হবে।

স্বরূপদাহ ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আনোয়ার হোসেন এবং চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।