চৌগাছার মর্জাদ বাওড়ের ১০৯ একর জমি অবৈধদখলমুক্ত করল প্রশাসন!

0
164

চৌগাছা যশোর থেকে

যশোরের চৌগাছায় ১০৯.৪৪ একর সরকারি জমি দখলমুক্ত করেছে মৎস্য অধিদপ্তর।
গতদিন মর্জাদ বাওড় ব্যবস্থাপক মুহ: শফিকুল ইসলামের প্রচেষ্টায় এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানার সর্বাতœক সহায়তায় স্থানীয় প্রভাবশালিদের দখলে থাকা এই ১০৯.৪৪ একর জমি দখলমুক্ত করা হয়।
এদিন উপজেলার তেঘড়ি গ্রামে মর্জাদ বাওড়ের পক্ষ থেকে ওই জমি অবৈধ দখলমুক্ত করতে একটি সভার আয়োজন করা হয়। বাওড় ব্যবস্থাপক মুহ: শফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যশোর জেলার প্রকল্প পরিচালক আলফাজ উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভ’মি) গুঞ্জন বিশ্বাস এবং উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হরিদাস পাল উপস্থিত ছিলেন।
এবিষয়ে মর্জাদ বাওড় ব্যবস্থাপক বলছেন, এই ১০৯.৪৪ একর সরকারি জমি দীর্ঘ দিন স্থানীয় প্রভাবশালিরা অবৈধ দখল করে মাছ এবং ধান চাষ করছিলেন। তবে দখলে থাকা স্থানীয়রা বলছেন,“এই জমি দীর্ঘ প্রায় ২০/২৫ বছর ধরে বিভিন্নজন বৈধভাবে চাষাবাদ করছেন। কারন দখলে থাকা সকলেই ওই জমির লিজ বাবদ বাওড় ব্যবস্থাপককে নগদ অর্থ ও মাছের পোনা দিয়ে আসছিলেন।
কিন্তু গত দুই মাস আগে মুহ: শফিকুল ইসলাম বাওড় ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগদানের পরেই ওই দখলদারদের বাওড়ের জমি ছেড়ে দিতে বলেন এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাহায্য প্রার্থনা করেন। তখন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতান বেদখল হয়ে যাওয়া ওই জমি ফিরিয়ে আনতে সর্বাতœ সহযোগিতা করেন এবং বেদলকৃত জমি বাওড় ব্যবস্থাপককে বুঝিয়ে দেন।
এরআগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানা উপজেলার বল্লভপুর বাওড়ের ৬০ বিঘা জমির অনিয়মতান্ত্রিক বরাদ্দ বাতিল করেন। এবং সেই জমি স্থানীয় ভোগদখলে থাকা মৎস্যজীবিদের মাঝে নতুন করে বরাদ্দ দেন।