চৌগাছায় দিনে দুপুরে প্রবাসির টাকা ছিনতাই

0
202

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় দিনে দুপুরে এক প্রবাসির লক্ষাধিক টাকা লুট করেছে দূর্বত্তরা। প্রবাসি আরাফাত হোসেন আলতাফ (৪১) মুঠো ফোনে এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন,“তাকে ও তার স্ত্রী খাদিজাকে মারধোর করে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা ছিনতাই করেছে দূর্বত্তরা”।

মঙ্গলবার দুপুর ২টার আগে উপজেলা সদরের ইজিবাইক স্ট্যান্ডে এই ঘটনা ঘটে। আরাফাত হোসেন আলতাফ চৌগাছা পাশাপোল ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত লুৎফর বিশ্বাসের ছেলে।

ঘটনার পরপরই প্রবাসি আলতাফ তার স্ত্রীকে নিয়ে চৌগাছা থানায় পৌছান। তাদের মুখে ঘটনা শুনে তখনই ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজের নির্দেশে পুলিশের একাধিক দল দূর্বত্তদেরকে গ্রেফতার করতে ঘটানস্থলে পৌছায়।

প্রবাসি আলতাফ জানিয়েছেন, “ ১০ বছর বিদেশে (দুবাই) থেকে কয়েকদিন হলো দেশে ফিরেছি। মঙ্গলবার আমার স্ত্রীকে নিয়ে চৌগাছা ইসলামি ব্যাংক থেকে ১ লাখ ১৫ হাজার টাকা উত্তোলন করি। ব্যাংক থেকে বেরিয়ে কিছু কেনাকাটা শেষে উপজেলা-ঝিকরগাছা সড়কের ইজিবাইক স্ট্যান্ডে পৌছিয়ে একটি ভ্যানে উঠি। এসময় হঠাৎ করে ৪জন আমাদেরকে বলেন,“তোরা ভ্যানে যেতে পারবি না।” কেনো যেতে পারবো না জানতে চাইলে একজন হঠাৎ করে বলে,“ কেনো সেকথার কি কৈফিয়াত দিতে হবে” এই বলেই সে আমাকে মারতে শুরু করে। সে সময় অন্যারাও আমাকে মারতে থাকে। আমি প্রানভয়ে রাস্তা ছেড়ে চালের বাজারের দিকে দৌড় দিই। সেখানেও তারা আমাকে মারে। তারা আমার স্ত্রীর উপরেও আক্রমন করে এবং তার হাত ব্যাগে থাকে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা কেড়ে নিয়ে যায়।

“আপনি কিভাবে নিশ্চিত হলেন আক্রমনকারিরাই আপনার টাকা নিয়েছে,উত্তরে তিনি বলেন ওরা ছাড়া আমাদেরকে কেউ মারধোর করেনি।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে চানপুর গ্রামের খালিদ,মুজাম এবং মনমথপুর গ্রামের ফারুকসহ ৪জনকে অভিযুক্ত করে চৌগাছা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রবাসি আরাফাত হোসেন আলতাফ।

এদিকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শ করে ও ঘটনাস্থলের আশেপাশের দোকানে থাকা সিসিটভি ফুটেজ পরীক্ষা এবং স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ। তিনি বলেন,“ প্রবাসি আলতাফ তার স্ত্রীসহ কয়েকজন ওই ইজিবাইক স্ট্যান্ড থেকে একটি ভ্যান ভাড়া করছিলেন। এমন সময় ইজিবাইক স্ট্যান্ডে থাকা স্ট্যাটার খালিদ,ফারুক,মুজাম ও লুঙ্গি পরা একজন তাদেরকে ভ্যানে যেতে বাধা দেয়। তারা তাদেরকে ইজিবাইকে যেতে বলে। এক পর্যায়ে খালিদ,ফারুকসহ কয়েকজন তাদেরকে বেধড়ক মারপিট করে। এসময় প্রবাসির স্ত্রী স্বামীকে রক্ষা করতে এলে আক্রমনকারিরা তার উপর চড়াও হয় এবং তার হাত ব্যাগে থাকা টাকা নিয়ে নেয়। এঘটনায় জড়িত কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন দোষিদেরকে গ্রেফতারে ও টাকা উদ্ধারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।

তবে সকলেই এটাকে ছিনতায়ের ঘটনা বললেও মুখ খুলতে নারাজ সকলেই। তারা বলছেন,“ ইজিবাইক স্ট্যান্ডে মারপিটের ঘটনা নতুন না। ঘটনাস্থলের আশেপাশে কয়েকটি দোকানে সিসি টিভি আছে। আপনারা ওখানেই প্রকৃত ঘটনা খুজে পাবেন।”