চৌগাছায় মাদক ব্যবসায়িদের গুলিতে অপর এক মাদক ব্যবসায়ি আহত

0
86

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় মাদক সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সন্ত্রাসী হামলায় খোকন ওরফে খোকন হোসেন (৪৭) নামে এক মাদক ব্যবসায়ি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১টার দিকে উপজেলার সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে আহতের ভাগ্নে রাজু আহমেদ নিশ্চিত করেছেন।

খোকন দৌলতপুর গ্রামের ইসহকের ছেলে এবং একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি। বর্তমানে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ১০৫ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন বলে তার ভাগ্নে জানিয়েছে।

আক্রমনের বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে খোকনের সাথে অবস্থান করা তার ভাগ্নে রাজু আহমেদ এবং মিলন নামে তার এক প্রতিবেশি বলেন, বুধবার দিবাগত রাতে খোকনকে তার নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে থাকাবস্থায় সীমান্ত ঘেষা ভারতের দৌলতপুর (ইন্ডিয়াপাড়া) গ্রামের হবিবরের ছেলে, পেশাদার মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ি এবং কুখ্যাত সন্ত্রাসী সানোয়র ওরফে ফেন্সি সানোয়ার (৫৫) এবং দৌলতপুরের (বাংলাদেশ) মৃত খোরশেদের ছেলে কাশেম (৪৪) ঘরের জানালা দিয়ে খোকনের উপর ৬ রাউন্ড গুলি করে। গুলির আঘাতে খোকনের বাম হাতের দুটি আঙ্গুল ভেঙ্গে যায়। অপর একটি গুলি তার বুক ভেদ করে পেট ফুটো হয়ে বেরিয়ে যায়।

এ ঘটনায় আক্রমনকারিদের বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খোকন ভাগ্নের মুঠোফোনে বলেন সানোয়ার ও কাশেম আমাকে গুলি করেছে। আপনি কি করে দেখলেন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আক্রমনের সময় আমি জানালায় টর্চ লাইট জালিয়ে তাদেরকে দেখেছিলাম।

হামলার পরপরই বাড়ির লোকজন তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখান থেকে তাদেরকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

ঘটনার বিবরন দিতে গিয়ে তার ভাই বাবু বলেন, ওই রাতে ভাইয়ের চিৎকার শুনে আমি দ্রুত ছুটে আসি। এসে দেখি আমার ভায়ের হাতে এবং পেটে গুলি লেগেছে। আরও তিনটা গুলি ঘরের মধ্যে দেয়ালে লেঘেছে। ঘরের মেঝেতে গুলির খোসাও পড়ে আছে।

এ বিষয়ে সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও ওই ইউয়িন আওয়ামী লীগের সভাপতি (যিনি ওই একই গ্রামের বাসিন্দা) তোতা মিয়া জানিয়েছেন, মাদক সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই খোকনের উপরে এই সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে।

উল্লেখ্য আক্রমনকারি সানোয়ার ভারতরে নাগরিক এবং আহত খোকনের খালাত ভাই। বাংলাদেশের বিভিন্ন থানাতে এই সানোয়ারের বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা রয়েছে। এছাড়া চৌগাছা উপজেলার পূড়াপাড়া বাজারেও সানোয়ারের একটি বাড়িও রয়েছে। সানোয়ার চৌগাছার মাদক এবং অস্ত্র সাপ্লাই চেইনের গডফাদার। বেশ কিছুনি আগে এই খোকন সানোয়ারের একটি মাদকের চালান বিজিবি দিয়ে ধরিয়ে দিয়েছিল। সেই ঘটনার জেরেই তার উপর আক্রমন হয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চৌগাছা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধূরী বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে আছি।