চৌগাছায় মাদক ব্যবসায়ির অত্যাচারে দিশেহারা ইব্রাহিম

0
2817

নিজস্ব প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় মাদক ব্যবসায়ির অত্যাচারে প্রান বাচাতে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন ইব্রাহিম (৪০) নামে এক গরীব দিনমুজুর। গত ঈদের দুদিন পর থেকেই ইব্রাহিম বাড়ি থেকে পালিয়েছেন বলেই জানিয়েছে স্থানীয়রা। ২সন্তানের জনক ইব্রাহিম ওরফে ইব্রা উপজেলার চানপুর গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে।

নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্র জানিয়েছে, উপজেলার পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের চানপুর গ্রামের আব্দুর রহমান পচার ছেলে খালিদ (৪৬) একজস চিহ্নিত কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ি। দীর্ঘদিন ধরেই খালিদের রয়েছে রমরমা মাদক (ফেন্সিডিল) ব্যবসা। বেশ কয়েক বছর ধরে খালিদের সাথে তার ছেলে সবুজ এই মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রন করে। বাপ ছেলে দুজনই পুলিশের তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ি। এই খালিদ দীর্ঘদিন জোর করেই ইব্রাহিমকে দিয়ে ভারতের সীমান্ত থেকে ফেন্সিডিলের চালান নিয়ে আসার কাজ করিয়ে থাকে।

গোপনসংবাদে জানা যায়, খালিদের ৮০ পিস ফেন্সিডিল সীমান্ত থেকে এনে একই গ্রামের জনৈক আমজাদ মাষ্টারের ঘাস ক্ষেতের মধ্যে আশ্রয়ে লুকিয়ে রাখে ইব্রাহিমে। সেখান থেকে খালিদ ৬০পিস ফেন্সিডিল ফেরৎ পায়। বাকি ২০ পিস ফেন্সিডিল হারিয়ে যায়। সেই ফেন্সিডিল ফিরিয়ে দিতে না পেরে ভয়ে ইব্রাহিম ও তার পরিবার বাড়ি ছেড়ে পুড়াপাড়া গ্রামে পালিয়ে যায়। গত ২দিন আগে ইব্রাহিম তার আত্নীয় স্বজনের মাধ্যমে খালিদকে ২৫ হাজার টাকা দিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে। কিন্তু মাদক কারবারি খালিদ ও তার ছেলে আরো টাকার জন্যে ইব্রাহিমকে অত্যাচার করতে থাকে। ২৫মে সেই ফেন্সিডিলের টাকার জন্যে খালিদ ইব্রাহিমের বাড়িতে তার স্ত্রীর উপরে আক্রম করে। সেই চিত্র ইব্রাহিমের ছেলে তার মুঠোফোনে ধারন করে। ভিডিওতে দেখা ও শোনা যায় খালিদ ইব্রাহিমের স্ত্রীকে বলছে,“ এই ঘটনা জানাজানি হলে আমিও ফাসবো তুইও ফাসবি।” এ সংবাদ থানায় পৌছালে ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ এসআই এনামুলকে তদন্ত করতে পাঠান।

এ বিষয়ে ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।