চৌগাছায় রোজা রেখে কৃষকের জমির ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

0
260

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের চৌগাছায় রোজা রেখেও এক কৃষকের এক বিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা কর্মীরা।
সোমবার উপজেলা শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে একেবারে ভারত সিমান্তের সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নের কাটাতার ঘেষা আড়সিংড়ি পুকুরিয়া গ্রামের মাঠ থেকে এই ধান কেটে দেয় তারা।
গ্রামের কৃষক মতিউর রহমান মোবাইল ফোনে জানান মাঠে তার তিন বিঘা জমিতে ধান পেকেছে। ধান কাটার শ্রমিক পাচ্ছিলেন না তিনি। সোমবার ছাত্রলীগের ছেলেরা তার একবিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছে। অন্যদুই বিঘায় এখনো পানি জমে থাকায় ওই জমির ধান আরো দু’তিন দিন পর কাটতে হবে। সেগুলোও ছাত্রলীগের নেতারা কেটে দেবেন বলে জানান তিনি।
এমএম কলেজ ও চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সুমন সরকার, ছাত্রলীগ নেতা ও স্থানীয় প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক এইচএম ফিরোজ,রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা ও চৌগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড.মুস্তানিছুর রহমানের ছেলে শফিউর রহমান রাথিক মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রুবেল হুসাইন, আব্দুল করিম, সারজান দেওয়ান সোহেল, যুবলীগ নেতা ইকবাল হোসেন,ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ হাসান শোভন, সোহেল রানা, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বিএম উজ্জ্বল হোসেন রনি, মোঃ শাহাবুদ্দিন, রাব্বি মৃধা , সুমন হোসেন, রিওন বাবু, মোঃ আলামিন, মেহেদী হাসান, হাসান মৃধা এবং চঞ্চল হোসেন এই এক বিঘা জমির ধান কেটে দিয়েছেন বলেই জানিয়েছেন কুষক মতিউর।
এ ব্যাপারে সুমন সরকার, এইচ এম ফিরোজ ও রুবেল হুসাইন বলেন করোনা ভাইরাসের এই দুর্যোগময় সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি ও সম্পাদকের আহবানে সাড়া দিয়ে ছাত্রলীগ সারা দেশে কর্মহীন অসহায় মানুষের পাশে দাড়াচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে আমরা ওই কৃষকের ধান কেটে দিয়েছি।
নেতৃবৃন্দের আহবানে সাড়া দিয়ে আগামীতে অন্য কৃষকদের জমির ধান কেটে বা অন্য যে কোন উপায়ে পাশে থাকবো বলেও জানিয়েছেন ছাত্রলীগের এই নেতারা।
কৃষক মতিয়ার রহমান বলেন ছাত্রলীগের ছেলেরা চৌগাছা থেকে মটরসাইকেলে করে এসে আমার ক্ষেতের ধান কেটে দিয়ে গেছে। ওরা রোজা থেকেও আমার ধান কেটে দিয়ে এই শ্রমিক সংকটের সময়ে অনেক উপকার করেছে। নাস্তা করানোর জন্য কিছু বিস্কুট এনেছিলাম রোজা থাকায় ওরা খায়নি। আমি ছাত্রলীগের এই ছেলেদের প্রতি কৃতজ্ঞ। তবে আফসোস হচ্ছে রোজা থাকার কারনে ওদের একগ্লাস পানিও খাওয়াতে পারলাম না।
কৃষকের ছেলে চঞ্চল আন্দুলিয়া দাখিল মাদরাসা থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। তিনি ছাত্রলীগের কর্মী। মোবাইল ফোনে তিনি জানালেন আমার রাজনৈতিক বড় ভাই ও সহকর্মীরা আজ আমাদের ধান কেটে দিয়েছেন। মুজিব আদর্শের একজন কর্মী হিসেবে নিজেকে আজ ধন্য মনে করছি।