চৌগাছায় সাময়িক বহিস্কৃত প্রধান শিক্ষকই নতুন ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সচিব ???

0
173

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর চৌগাছার ছারা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজি গোলাম মোস্তফাকে সাময়িক বহিস্কারের ঘটনায় ধ্রম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। এবং বহিস্কারের ঘটনায় বিভিন্ন শিক্ষকদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যে উপজেলার ৬টি সুনামধন্য মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন মুঠা ফোনে ওই শিক্ষকের সাময়িক বহিস্কার বিধি সন্মত হয়নি বলে দাবী করেছেন । পাশাপাশি ওই বিদ্যালয়ের নতুন ম্যানেজিং (এডহক) কমিটিতে প্রধান শিক্ষককে সদস্য সচিব হিসেবে দেখে তারা বিস্ময়ও প্রকাশ করেছেন।

এদিকে গত ৮মে গোলাম মোস্তফা তার বহিস্কারাদেশ অবৈধ ও পরিপত্র পরিপন্থী দাবী করে সুষ্ঠু ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

তিনিা অভিযোগ করেন, আমার স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হওয়ার জন্য এসএম সাইফুর রহমান বাবুল বেশ কিছুদিন ধরে আমাকে চাপ প্রয়োগ ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করছিলেন। একারনে আমি গত ১৯ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করতে নাপেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করি। পরে মেয়াদ ফুরিয়ে আসায় নতুন ম্যানেজিং কমিটির (এডহক) জন্য আমার আবেদনে ১৭ এপ্রিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শফিকুর রহমানকে অভিভাবক সদস্য ও ২৪ এপ্রিল জেলা শিক্ষা অফিসার সহকারি শিক্ষক উম্মে সালমাকে শিক্ষক সদস্য অনুমোদন করেন। পরে ২৫ এপ্রিল সাবেক কমিটির মেয়াদের শেষ দিনে স্কুলের সিনিয়র সহকারি শিক্ষক প্রভাত কুমার মিশ্রকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসেবেও নিয়োগ দিয়ে তার আবেদনে (ওই তারিখেই) এসএম সাইফুর রহমান বাবুলকে সভাপতি, প্রধান শিক্ষককে সদস্য সচিব, উম্মে সালমাকে সাধারন শিক্ষক সদস্য এবং মোঃশফিকুর রহমানকে অভিভাবক সদস্য করে নতুন এডহক কমিটিকে অনুমোদন দিয়েছে যশোর শিক্ষা বোর্ড।

অনুমোদিত কমিটিতে সাময়িক বহিস্কৃত প্রধান শিক্ষক কিভাবে সদস্য সচিব হলেন জানতে চাইলে যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক ড.বিশ্বাস শাহিন আহম্মদ প্রশ্ন করেন ,“প্রধান শিক্ষক যে সাময়িক বহিস্কৃত তা কি আমাদেরকে (বোর্ডকে) জানানো হয়েছিল ?” পরে তিনি বলেন,“ স্কুলের আইডি এসএমএস করে পাঠান আমি দেখবো।”

এ বিষয়ে ম্যানেজিং কমিটির (এডহক) নতুন সভাপতি (যিনি সাবেক সভাপতির ছেলে) এসএম সাইফুর রহমান বাবুল বলেন, প্রধান শিক্ষককে তার দূর্নীতির কারনে এবং সকল নিয়ম মেনেই বহিস্কার করা হয়েছে। এবং তার সকল প্রমানাদি আমার কাছে সংরক্ষিত আছে।

এদিকে ২০২১ সালের সরকারি নীতিমালার ১৯ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ি,“কোনো ফৌজদারি/ নৈতিক স্ফলন/দূর্নীতির মামলায় কোনো শিক্ষক-কর্মচারি অভিযুক্ত হয়ে আদালত কর্তৃক অভিযোগপত্র গৃহিত হলে নিয়োগকারি কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট শিক্ষক/কর্মচারিকে সাময়িক বরখাস্ত করতে পারবে।”

জানতে চাইলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম মোঃ রফিকুজ্জামান বলেন,“স্কুল ম্যানেজিং কমিটির এডহক কমিটি তো নিয়োগকারি কর্তৃপক্ষ হতে পারে না।”

উল্লেখ্য গত ১৩ এপ্রিল বিভিন্ন অভিযোগে চৌগাছা ছারা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজি গোলাম মোস্তফাকে সাময়িক বহিস্কার করে স্কুল ম্যানেজিং (এডহক) কমিটির সাবেক সভাপতি এসএম আতিয়ার রহমান।