চৌগাছায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার উপরে সন্ত্রাসী হামলা ও গাড়ি ভাংচুর

0
95

নিজস্ব প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান হোসেনের উপরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের চান্দআফরা পাকড়াতলা নামক স্থানে ইমরানের উপরে এই সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। হামলায় ইমরানের ব্যবহ্নত প্রাইভেট কারটি (ঢাকা মেট্্েরা-গ ১১-৭৩৯৪) ভাংচুর করে সন্ত্রাসীরা। ইমরান হোসেন মনমথপুর গ্রামের রুহুল আমিনের (পান্নু) ছেলে এবং উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বেড়গোবিন্দপুর মৎস্যজীবি সমিতির সাধারন সম্পাদক।


এ ঘটনা পরবর্তী এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে ইমরান হোসেন বলেন, বাওড়ের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য চলতি মাসের ৫ তারিখ থেকে ফিসিং শুরু করি। চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মেহেদী মাসুদ চৌধূরী এ বাওড়কে কেন্দ্র করে আমার কাছে ৫ লাখ টাকা দাবী করে। আমি টাকা দিতে অস্বীকার করি। এবং তাকে বলি সরকারের লক্ষ্যমাত্রা আগে। তারপরে যদি টাকা বাচে তখন আমি আপনাকে দল চালানোর জন্য দেবো। এরমধ্যে দিয়ে তার পুষা গুন্ডা মঙ্গল ডাকাতের ছেলে সলুয়ার টিটো ওরফে ঘ্যানা টিটো, সাঈদ, টেংরা ওরফে আশা আমাকে ফোন করে হুমকি দিয়ে বলে তোর সাথে বুঝপড় হবে। আজ আমি মাছ বিক্রি শেষে ফিরে আসার পথে উপজেলার চান্দ আফরা পাকড়া তলা নামক স্থানে ইজি বাইক আড় করে দিয়ে ৮/১০ জন লোক আমার গাড়ির গতিরোধ করে। এর মধ্যে টিটো ওরফে ঘ্যানা টিটো, সাঈদ এবং ট্যাংরাকে আমি চিনেছি। এরপরে আমি গাড়ি থামালে তারা গাড়ি সাইড করতে বলে। এরপরে আমি দেখি সাঈদ পাশের থেকে লোহার রড় এবং টিটো পিস্তল বের করছে। সেসময় আমি গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করলে তারা আমার গাড়ির উপরে হামলা চালায়। ঘটনার সময় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক ইব্রাহীম হোসেন, তার বড় ভাই মিলন এবং আমার ছোট ভাই ইকরামুল আমার গাড়িতে ছিল।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও ১নং ফুলসারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহেদী মাসুদ চৌধূরীকে সন্ধ্যায় (৭.০৩ মি.) মুঠো ফোনে কল করা হলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
এ বিষয়ে চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, এ ঘটনায় এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলেই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।