চৌগাছা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার স্ট্যান্ড রিলিজ স্থগিত

0
270

নিজস্ব প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় স্ট্যান্ড রিলিজ হওয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রইচ উদ্দিনের বদলি আদেশ স্থগিত করা হয়েছে। ১৭ নভেম্বর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের পক্ষে উপ পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ ফখরুল হাছান এই আদেশে স্বাক্ষর করেন।
আদেশে বলা হয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বিসিএস (কৃষি) ক্যাডার কর্মকর্তা জনাব কেএম শাহাবুদ্দিন আহমেদ (২৪২৫), উপজেলা কৃষি অফিসার, গাংনী, মেহেরপুর ও ২। জনাব মোঃ রইচ উদ্দিন (২৫৪৯), উপজেলা কৃষি অফিসার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, চৌগাছা, যশোরকে অত্র দপ্তরের স্মারক নং-১২.০১.০০০০.০০০.৮১.০০৩.১৯.২৯০/১(২১), তারিখ- ০৯/১১/২০২০ খ্রিঃ মূলে যথাক্রমে উপজেলা কৃষি অফিসার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, চৌগাছা, যশোর ও উপজেলা কৃষি অফিসার, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া বদলী/পদায়নের আদেশটি অনিবার্য কারণ বসত স্থগিত করা হলো। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।
এর আগে গত ৯ নভেম্বর এক আদেশে সার ডিলারদের অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে আলোচিত চৌগাছা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রইচ উদ্দিনকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বদলি করা হয়। সেই খবর বিভিন্ন গনমাধ্যমে প্রকাশিত হলে তার বদলি আদেশ প্রত্যাহার এবং মুনাফাখোর সার ডিলারদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে গত মঙ্গলবার চৌগাছা শহরের ভাস্কর্য মোড়ে মানববন্ধন করেন কৃষকরা।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে ধারাবাহিক অনিয়মের অভিযোগে ও কৃষি বিভাগের নির্দেশনা না মেনে অতিরিক্ত মূল্যে সার বিক্রিসহ নানা অভিযোগে উপজেলা ফার্টিলাইজারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও উপজোলা বিএনপির ১নং যুগ্ম-আহবায়ক ও সাবেক সেক্রেটারী ইউনূচ আলী দফাদারের মালিকানাধীন মেসার্স ইউনূচ আলী,পাতিবিলা ইউনিয়নের সার ডিলার ফরিদুল ইসলামের মালিকানাধীন মেসার্স ফরিদুল ইসলাম এবং বিএনপি নেতা আতিকুর রহমান লেন্টুর মালিকানাধীন মেসার্স শয়ন ট্রেডার্সের ডিলারশিপ বাতিলের সুপারিশ করে উপজেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটি। এরআগে ওয়ান ইলেভেনের সময়ে অতিরিক্ত মূল্যে সার বিক্রির অভিযোগে উপজেলার এই বিএনপি নেতা ইউনূচ আলী দফাদার গ্রেফতার হয়ে জেল খাটেন।
সার ডিলারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে আলোচিত উপজেলা কৃষি অফিসার রইচ উদ্দিনকে স্ট্যান্ড রিলিজ করায় চৌগাছার কৃষক সমাজের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। মঙ্গলবার কৃষকরা এর বিরুদ্ধে চৌগাছা শহরে মানববন্ধনও করেন।
এদিকে বুধবার উপজেলা কৃষি অফিসার রইচ উদ্দিনের স্ট্যান্ড রিলিজের আদেশ স্থগিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন কৃষকরা। এ বিষয়ে জিওলগাড়ী গ্রামের কৃষক আকবর আলী, সিংহঝুলী গ্রামের টনিরাজ, শামছুল হুদা দফাদার, সাবের আলী সরর্দার, সাইফুল ইসলাম, হুদা ফতেপুর গ্রামের মাওলানা আলী আকবর, মাঝালী গ্রামের শহিদুল ইসলাম, নারায়নপুর গ্রামের তুহিনুর রহমান, আমিনুর রহমান, মোবারক আলী মুন্সী, তোফাজ্জেল হোসেন, রামকৃষ্ণপুর গ্রামের কৃষক লাভলুসহ বেশ কয়েকজন কৃষকের সাথে কথা বললে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন। তারা বলেন অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া কৃষি অফিসারকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে শুনে আমরা মর্মাহত হয়েছিলাম। তার স্ট্যান্ড রিলিজের আদেশ প্রত্যাহার হওয়ায় আমরা সন্তষ্ট। আশা করি তিনি আগের মত দূর্নীতিবাজ সার ডিলারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া অব্যাহত রাখবেন।
উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্য আসাদুজ্জামান মুক্ত বলেন ‘‘চৌগাছা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রইচ উদ্দিন একজন সৎ কর্মকর্তা। তিনি সরকার নির্ধারিত মূল্যে যাতে সার কৃষকের হাতে পৌছায় সে বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ায় দূর্নীতিবাজ সার ডিলাররা তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাতে থাকেন। কৃষি কর্মকর্তা যে সৎ অফিসার সেটা ডিলাররা বারবার দাবি করেন। এবং তারাই তদবির করে তাকে অনৈতিক ভাবে স্ট্যান্ড রিলিজ করিয়েছিলেন। সে আদেশ প্রত্যাহার হওয়ায় আমরা সন্তষ্ট। ব্যক্তিগতভাবে সৎ এবং সরকারের ভাবমূর্তি উন্নয়নকারী কর্মকর্তাদের ভালকাজের জন্য পুরস্কৃত করতে হবে। তাহলে তারা ভালো কাজে আরো উৎসাহ পাবেন। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার পথে দেশকে এগিয়ে নিতে উৎসাহিত হবেন।’’