ছুটির দিনেও খালেদা জিয়ার জন্য পাসপোর্ট অফিস খোলা, নির্দেশ পেলে প্রিন্ট

0
72

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পাসপোর্ট নবায়নের জন্য বৃহস্পতিবার (৬ মে) জমা দেওয়া হয় পাসপোর্ট অধিদপ্তরে। শুক্রবার (৭ মে) ছুটি দিন থাকলেও যে কোনো সময় খালেদা জিয়ার পাসপোর্ট প্রিন্ট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিলেন কয়েকজন কর্মকর্তা। সময় সংবাদকে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত সরকারের পক্ষ থেকে কেউ এখনো পাসপোর্ট প্রিন্ট করার জন্য অনুমতি দেয়নি বলে পাসপোর্ট অধিদপ্তর সূত্র নিশ্চিত করছে। তবে পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য সব প্রস্ততি রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাসপোর্ট অধিদপ্তর।

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার পাসপোর্টের মেয়াদ ২০১৯ সালে শেষ হয়ে যায়। তাই তার নতুন পাসপোর্টের (রি-ইস্যু) জন্য আবেদন করা হয়।

অসুস্থ খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করা হয়েছে। সরকার অনুমতি দিলে করোনায় পরবর্তী জটিলতার উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনি যেকোনো দিন লন্ডন অথবা সিঙ্গাপুরে যাবেন।

গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজায়’ তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। করোনা আক্রান্তের ১৪ দিন পার হওয়ার পরও খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট করা হলে ফলাফল পজিটিভ আসে। এরপর কিছু পরীক্ষার জন্য তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। প্রথম দফায় পরীক্ষা করে বাসায় ফেরার পর দ্বিতীয় দফায় ২৭ এপ্রিল তাকে ফের হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সোমবার (৩ মে) ভোরের দিকে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় খালেদা জিয়াকে সিসিইউতে (করোনারি কেয়ার ইউনিট) স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।