জমির মালিককে টাকা না দেয়ার অভিযোগ

0
244

নিজস্ব প্রতিবেদক, (যশোর): যশোরের ঝিকরগাছার ৮নং নিবাসখোলা ইউনিয়নে বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকানা জমি লীজ
নিয়ে নীল কুঠি জঙ্গলে পার্ক তৈরি করা হলেও জমির মালিককে কোন টাকা দেয়া হচ্ছে না। টাকা চাইতে
গেলে তাদের জীবন নাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে। এছাড়া পার্কের পাশে ব্যক্তি মালিকানা জমিগুলো জোর
করেদখল করারও অভিযোগ রয়েছে। এমনকি পার্কের কুঠি ঘর তৈরি করে তার অসামাজিক কার্যকলাপ
করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে সংবাদ ম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে
এলাকাবাসী এ অভিযোগ তুলে ধরেন।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, শার্শার উলাসী গ্রামের পূর্ব পাড়ার আব্বাস আলীর ছেলে ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম মিলন, শরিফুল ইসলাম পিপুল ও তার ছেলে আশিক, মতিয়ারের ছেলে শরিফুল, মির্জাপুর গ্রামের আজিজ ম-লের ছেলে শামীম ৭/৮ বছর আগে নিবাসখোলায় নীলকুঠি জঙ্গরে পার্ক তৈরি করে। ব্যক্তি মালিকানা এসব জমিতে লীজ নিয়ে পার্ক তৈরি করলেও তাদেরকে আজ পর্যন্ত কোন টাকা দেয়নি। টাকা চাইতে গেলে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হাত পা ভেঙ্গে দিচ্ছে। কাউকে জীবন নাশের হুমকি দিয়েছে। কামরুজ্জামান স্বপন, জাফর মাস্টার ও ভ্যান চালক কালুকে হাত পা ভেঙ্গে দেয়ায় সারাজীবন পঙ্গুত্ব ভাবে বসবাস করছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে জানালে তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করে বরং তাদের কাছ থেকে মাসোহারা নিচ্ছে। এছাড়া পার্কের মধ্যে ছোট ছোট কুড়ি ঘর করে যুবক যুবতীদের অল্প টাকা ঘন্টা চুক্তিতে ভাড়া দিয়ে তার মধ্যে অসামাজিক কার্যকলাপ করছে। এতে এলাকার উঠতি বয়সের যুবক যুবতীরা বিপদগ্রস্থ হয়ে পড়ছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মির্জাপুর গ্রামের ফজলুর রহমান, ফিরোজ হোসেন, জমির উদ্দিন, আব্বাস আলী, আ: জলিল, মোছা. সানিয়া বেগম, আনিছুর খাঁ মন্টু, রুহুল, মোস্তফা, মহিউদ্দিন, কামাল হোসেনসহ ৩৩জন ভুক্ত ভোগী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here