জীবনের নিরাপত্ত্বা দাবিতে চৌগাছার ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

0
109

নিজস্ব প্রতিবেদক : জীবনের নিরাপত্ত্বার দাবিতে প্রেসক্লাব যশোরে একজন ইউপি চেয়ারম্যান বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন। এদিন দুপুরে জেলার চৌগাছা উপজেলা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম এই সংবাদ সম্মেলন করেন।
ইউপি চেয়ারম্যান অভিযোগ করেন, গত ৭ ফেব্রুয়ারি তাকে হত্যা করতে সন্ত্রাসীরা ১টি প্রাইভেটকার ও ৩০-৩৫টা মোটর সাইকেল নিয়ে কাউন্সিলে আসে। তারা ইউপি চেয়ারম্যানকে খুজার এক পর্যায়ে নারী গ্রাম পুলিশ শাহিদা বেগম উপস্থিত বুদ্ধিতে বাইরে থেকে চেয়ারম্যানের ঘরে তালা মেরে দেয়। এসময় চেয়ারম্যানকে না পেয়ে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। এই দলটির নেতৃত্বে ছিল মনমতপুরের আরঙ্গজেব চুন্নুর পুত্র শামীম রেজা ওরফে গালকাটা শামীম। তার সাথে ছিল সন্ত্রাসী একই গ্রামের রুহুল আমীন পান্নুর পুত্র ইমরান হোসেন, মৃত ওয়াজেদ আলীর পুত্র আরিফ, মৃত আয়নাল হকের পুত্র আরিফ, বহিলাপোতার দিলিপ মাস্টারের পুত্র সনজিত কুমারসহ অনেকেই। বিষয়টি থানায় জিডি হিসাবে জমা দেওয়া হলেও চৌগাছা থানা পুলিশ জিডিটি আমলে নেয়নি।
আবুল কাশেম বলেন, চৌগাছা সদর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ কমিটি গঠন নিয়ে এই দ্বন্দ্ব শুরু। গত ১৩ ডিসেম্বর ঐ কমিটি বিলুপ্ত হয়। পরবর্তীতে চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি একটি কমিটি রাতারাতি তৈরি করে প্রকাশ করেন। ৩০ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএ মোজাম্মেল হকের নির্দেশে যশোর জেলা আওয়ামীলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মো: ওহিদুল ইসলাম ঐ কমিটি বিলুপ্ত করেন। অভিযোগ রয়েছে ঐ ঘোষিত কমিটিতে মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসীদের নাম ছিল।
ইউপি চেয়ারম্যান আরো অভিযোগ করেন সন্ত্রাসী শামীম বেড়গোবিন্দপুর বাওড় নিজের দখলে রেখে সেখান থেকে মাছ বা মাছ বিক্রির টাকা লুটপাট করছে। একারনে বাওড়টি লোকসানের গন্ডি থেকে বের হতে পারছে না। আওয়ামীলীগ রক্ষায় এধরনের সন্ত্রাসী লুটপাটকারীকে দল থেকে হঠাতে হবে বলে তিনি মতামত ব্যক্ত করেন। পরিশেষে তিনি বলেন, অবস্থা যা দাড়িয়েছে তাতে তিনি যে কোন সময়ে খুন হতে পারেন। সন্ত্রাসীরা সেখানে এতটাই বেপরোয়া যে সাধারন মানুষের করণীয় কম। তবে আশার কথা তার সাথে সাধারন মানুষ রয়েছে। এটাকে তিনি পজিটিভ হিসাবে দেখছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান, ২ নং ওয়ার্ডের সভাপতি সেলিম রেজা, সাধারণ সম্পাদক সোহাগ হোসেন, ইউপি সদস্য ইউনুস আলী, আওয়ামী লীগ নেতা মতিয়ার রহমান, শফিকুল ইসলাম, হাসান আলী ও তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।