ঝিকরগাছার পটল ক্ষেতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ

0
63

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ শুক্রবার (২৫ মার্চ) যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার পানিসারা ইউনিয়নের চাপাতলা গ্রামের পটল ক্ষেত থেকে এক গৃহবধধূর গলাকাটা রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি শার্শা উপজেলার লক্ষনপুর গ্রামের আইয়ুব হোসেনের স্ত্রী সুমাইয়া আক্তার (২৫)। লাশ ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি রুপন কুমার সরকার জানিয়েছেন, ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

ওসি জানান, শুক্রবার সকাল ৬টায় চাঁপাতলা গ্রামের ঝিনুকদাহ মাঠে নিজ পটল ক্ষেতে কাজ করতে যান গোলাম মোস্তফা। এ সময় ক্ষেতের ঘাসের মধ্যে এক মহিলার রক্তাক্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে এলাকার লোকজন জড়ো হয়। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসিসহ থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।

ডিবি ওসি জানান, মহিলার রক্তাক্ত লাশের গলার সামনের দিক হতে ডান কানের নিচ থেকে বাম কানের নিচ পর্যন্ত গলার অর্ধেক অংশ কাটা, ডান হাতের কব্জির উপরে গোলাকার আকারে রগ মাংস কাটা, বাম হাতে কব্জির ভিতর দিকে অনুমান আড়াই ইঞ্চি রক্তাক্ত কাটা জখম, পেটে দুটি রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন এবং কোমড়ের বামপাশেও দুটি কাটা রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন রয়েছে।

২৪ মার্চ বিকাল ৫টা হতে ২৫ মার্চ সকাল ৬টার কোনো এক সময় অজ্ঞাতনামা মহিলাকে কে বা কারা হত্যা করে লাশ ঘটনাস্থলেই ফেলে রেখে যায় বলে পুলিশ জানায়।