ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নিছার উদ্দীন এর বিরুদ্ধে সাড়ে ৩ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে !

0
372

আরিফুজ্জামান আরিফ : বাগআঁচড়া ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও জামাত নেতা নিছার উদ্দীন  লুটপাটের মহোৎসবে নেমেছেন।ইউনিয়ন পরিষদ কে বানিয়েছেন হরিলুটের কান্ড কারখানা। আত্মসাৎ করছেন বিভিন্ন প্রকল্প অনিয়মের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা। এবার তার বিরুদ্ধে ৪০ দিনের কর্ম সৃজন প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির  মাধ্যমে সাড়ে ৩ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।  চলছে নানা সমালোচনার ঝড়।জামাত নেতা ও চেয়ারম্যানের এহেন কর্মকান্ড বিস্মিত ইউনিয়ন বাসী।

জেলা প্রাশসক যশোর, বরাবর এলাকাবাসীর ও ভুক্তভুগী স্বাক্ষরিত অভিযোগে জানা গেছে , ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা নিছার উদ্দিন উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের ন্যায় তার  ইউনিয়নের গরীব, অসহায় দিনমুজুর দের জন্য ৪০ দিনের কর্ম সৃজন প্রকল্পের কাজ পান।

এবং প্রথম অর্ধের ২০ দিনের মুজরী  শ্রমিকদের মাঝে সঠিক ভাবে বিলি বন্টন  করেন। কিন্তু ধূর্ত জামায়াত নেতা চেয়ারম্যান নিছার উদ্দিন দ্বিতীয় অর্ধের ১০ দিনের শ্রমের মুজরী ১৭৫০টাকা হারে ১৯১ ইউনিটের কাছ থেকে ৩ লক্ষ ৩৪ হাজার ২৫০ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। অভিযোগে আরও জানা গেছে চেয়ারম্যান নিছার উদ্দিন এর আগেও ভিজিএফ,টিআর,এলজিএসপি,বয়স্কভাতা,মার্তৃত্ব কালীন ভাতা সহ বিভিন্ন সময়ে আসা সরকারী অনুদান অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাত করেছেন। বিষযটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপকচঞ্চাল্য ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান নিছার উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রকল্পের সভাপতি মেম্বররা। তাদের সাথে বসে বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়া ভালো।

বিষয়টি নিয়ে সোনালী ব্যাংক বাগআঁচড়া শাখার ব্যবস্থাপক এ এম এম জাহিদুল হক  স্ব স্ব শ্রমিকদের হাতে টাকা না দিয়ে  মেম্বরদের কাছে টাকা দেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন,শ্রমিকদের টাকা সঠিক ভাবে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়ে মেম্বররা চেকে সই করে টাকা নিয়েছে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম বলেন,বিষয়টি তদন্তে সঠিক প্রমানিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এলাকাবাসী ও ভুক্ত ভুগী শ্রমিকরা চেয়ারম্যান ও জামাত নেতা নিছার উদ্দিন সহ জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জেলা প্রাশাসক , উপজেলা নির্বাহী আফিসার সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করে লিখিত ভাবে  বিষয়টি অবহতি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here