ঝিনাইদহে দুই বাড়ির একটি নিহত জঙ্গি তুহিনের বাবার

0
229
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চুয়াডাঙ্গা গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা দুই বাড়ির একটি নিহত জঙ্গি তুহিনের বাবার বলে জানিয়েছে র‍্যাব ।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চুয়াডাঙ্গা গ্রামে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা দুই বাড়ির একটি নিহত জঙ্গি তুহিনের বাবার বলে জানিয়েছে র‍্যাব। দুই বাড়ির একটি নিহত জঙ্গি তুহিন ও তার ভাই আটক সেলিমের বাবা আফতাব আলীর এবং অপরটি আটক প্রান্ত নামের যুবকের বাবা মতিয়ার রহমানের।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে  র‍্যাব ওই দুই বাড়িতে অভিযান শুরু করে। সেখানে জঙ্গিরা অবস্থান করছে এবং বোমা ও আগ্নেআস্ত্র মজুদ রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে র‍্যাব।

র‌্যাব-৬ এর কমান্ডার মেজর মনির আহমেদ জানান, গতকাল থেকেই গোপন সূত্রে জানা যায়-ঝিনাইদহ সদরের পোড়াহাটি ইউনিয়নের চুয়াডাঙ্গা গ্রামের সেলিম ও প্রান্ত নামের দুইজনের বাবার দুই বাড়িতে জঙ্গিরা অবস্থান করছে। ওই খবরের ভিত্তিতে সকাল ৭টা থেকে বাড়ি দুইটি ঘিরে রেখে অভিযান শুরু করা হয়। ওই দুই বাড়িতে জঙ্গি থাকতে পারে এবং বিপুল পরিমাণ বোমা ও বিস্ফোরক থাকতে পারে।

এর আগে গত ৭ মে মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর গ্রামে নিহত জঙ্গি তুহিনের আপন ভাই সেলিম ও চাচাতো ভাই প্রান্ত।

উল্লেখ্য,৭ মে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় বজরাপুর এলাকায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। ওই অভিযানে দুই জঙ্গি নিহত হয়। একইদিন বজরাপুরের পাশাপাশি সদর উপজেলার লেবুতলায়ও একটি পরিত্যক্ত জঙ্গি আস্তানা থেকে কিছু বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়।

এর আগে ২২ এপ্রিল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি গ্রামের ঠনঠনেপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় সিটিটিসি ইউনিটের সদস্যরা অপারেশন ‘সাউথ প’ চালায়। প্রায় ৪ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটের অভিযানে ওই জঙ্গি আস্তানা থেকে বিস্ফোরক তৈরি রাসায়নিক ভর্তি ২০টি ড্রাম, একটি সেভেন পয়েন্ট সিক্স বোরের পিস্তল, একটা ম্যাগজিন, সাত রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। পাঁচটি বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়। বাড়ির ভেতর থেকে ১৫টি জিহাদি বইও উদ্ধার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here