ঝিনাইদহে বোমা বিস্ফোরণে ও রাস্তায় গাছ ফেলে গরু ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ২৫ লাখ টাকা ডাকাতি

0
257

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝিনাইদহ: রাস্তায় গাছ ফেলে ও বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে গরু ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ডাকাতরা ২৫ লাখ টাকা নিয়ে গেছে। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের বাজার গোপালপুর-মহামায়া সড়কের নিমতলা মাঠে শুক্রবার রাতে এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। অস্ত্রধারী ডাকাতরা ট্রাকের গতিরোধ করে ১৪ জন গরু ব্যবসায়ীর কাছ থেকে সব টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় গরু ব্যবসায়িরা চিৎকার দিয়ে ডাকাতদের প্রতিরোধ করার চেষ্টা করলে সংঘবদ্ধ ডাকাতদল তিনটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় বাজারগোপালপুর পুলিশ ক্যাম্পের তদন্ত কর্মকর্তা ও ঝিনাইদহ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ডাকাতির শিকার গরু ব্যবসায়ি বাজার গোপালপুরের আলাউদ্দিন জানান, তার নিজ গ্রামের শফিউদ্দিন, সবুুজ, নওদাপাড়া গ্রামের পন্টু, কোটচাঁদপুরের সারুটিয়া গ্রামের হাফিজ, মিন্টু, করিম, রেজাউল, বাবুল, জুলফিকার, এবং কালিগঞ্জের বারোবাজারের জাহিদুল, শরিফ ও তরিফুল ইসলাম ট্রাকযোগে জয়পুরহাটে গরু কিনতে যাচ্ছিলেন।
তিনি আরো জানান, ট্রাকটি বাজারগোপালপুর পার হলেই নিমতলা মাঠের ব্রীজের নিকট পৌছালে রাস্তার উপর দু’টি গাছ পড়ে থাকতে দেখি।

ট্রাকোর গতি ড্রাইভার কমানোর সাথে সাথে ১০/১২ জনের মুখবাঁধা ডাকাত দল তাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এ সময় অস্ত্রের মুখে তাদের জিম্মি করে প্রায় ২৫ লাখ টাকা ডাকাতি করে নিয়ে যায়। ডাকাতির পর তারা চিৎকার দিলে তিনটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে চলে যায়। ডাকাত দলের ছোড়া বোমার স্প্রিন্টারে গরু ব্যবসায়ী শফি, হাফিজ, মিন্টু, সবুুজ ও করিম আহত হন। গরু ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন, বাজারগোপালপুর পুলিশ ক্যাম্প থেকে ঘটনাস্থল আধা কিলোমিটারও হবে না। এই স্থানে ডাকাতি হওয়া রহস্য জনক। ট্রাক চালক জালাল উদ্দিন জানান, আমার গলায় ধারোলে অস্ত্র ধরে ডাকাতরা গাড়ি চালাতে নিষেধ করে। গাড়িতে থাকা গরু ব্যাবসায়িদের একইভাবে জিম্মি করে বলে তিনি জানান। বিষয়টি নিয়ে বাজারগোপালপুর পুলিশ ক্যাম্পের এস আই সঞ্জয় কুমার ডাকাতির ঘটনা সত্য বলে জানান। তিনি বলেন, আমরা দ্রত ঘটনাস্থলে পৌছালে ডাকাত দল পালিয়ে যায়। তিনি ৩ জনকে আটকের কথা স্বীকার করেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমাদুল হক শেখ জানান, বিষয়টি গরু ব্যবসায়ীদের মধ্যে কেউ ঘটাতে পারে। আমরা দুই জনকে আটক করে ৫ হাজার টাকা উদ্ধার করেছি। তিনি বলেন, আমরা বারোবাজার এলাকার তিনজন গরু ব্যবসায়ীকে খুঁজছি। আশা করা যায় মোটিভ ও ক্লু দ্রুত উদ্ধার সম্ভব হবে। ওসি আরো জানান, টাকার পরিমান ১২/১৩ লাখ হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here