টানা দ্বিতীয়বারের মত ভারত জয় করলেন যশোরের মেয়ে ডাক্তার সাবরিনা রুবিন

0
179

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভারতের ৭৫তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গুজরাট সাহিত্য একাডেমি ও মোটিভেশনাল স্ট্রিপস গ্লোবাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন থেকে সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন যশোরের মেয়ে ডাক্তার সাবরিনা রুবিন। এর আগে তিনি সাহিত্য চর্ায় বিশেষ অবদান রাখায় বাংলাদেশ, ভারত, রাশিয়া, ইতালি, ফিলিস্তিন, পেরু ও কাজাখস্তান থেকেও পৃরস্কার লাভ করেছেন। উল্লেখ্য গত বছরও তিনি ভারত থেকে এই সম্মাননা পেয়েছিলেন।
তিনি যশোরের ঘোপ সেন্টা্রাল রোডের মন্জুর হাছান মাসুদ ও নাজনীন সুলতানার কন্যা।
সাবরিনা রুবিন বহুমুখী প্রতিভা এবং উচ্চ বুদ্ধিবৃত্তিক প্রতিভার অধিকারী। যা তাকে আবেগময় এবং মুগ্ধকর কবিতা রচনা করতে সাহায্য করেছে। পেশাগত জীবনে তিনি একজন স্বনামধন্য চিকিৎসক। শিল্প ও সাহিত্য অঙ্গনে তিনি একজন গুণসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব।
কবিতার মাধ্যমে তিনি সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টিতে ভূমিকা রেখেছেন। ব্যঙ্গাত্মকভাবেও তিনি অনেক বিষয়য়ে তার কবিতায় তুলে এনেছেন। সাবরিনা রুবিন যশোর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। গঙ্গা নদীর পলি থেকে প্রাকৃতিক প্রক্রিয়ায় এই জেলার সৃষ্টি। এই জেলায় রয়েছে বাংলা কবিতায় সনেটের প্রবর্তক মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি। এই কারণেই হয়তো প্রাকৃতিক উপহার হিসেবে তার মধ্যে কবি প্রতিভা জাগ্রত হয়।
তিনি তার কাজে সৃষ্টিশীল চিত্র প্রকাশের জন্য জনপ্রিয়। তার কবিতায় মানুষের দুঃখ, কষ্ট, বেদনা তুলে ধরা হয়েছে। অত্যন্ত অভিব্যক্তিপূর্ণ, যোগাযোগমূলক, মারাত্মক ও প্রতীকী বৈশিষ্ট্যের জন্য তার কবিতাগুলো উল্লেখযোগ্য। তিনি এখন অনেক লেখক/লেখিকার মধ্যে রোল মডেল। লেখালেখিতে ১০ বছরের ক্যারিয়ারে তিনি বাংলাদেশ, ভারত, রাশিয়া, ইতালি, ফিলিস্তিন, পেরু ও কাজাখস্তান থেকে পুরস্কার অর্জন করেছেন।
সাহিত্যের মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখার জন্য বহু পুরস্কার অর্জন করে সাহিত্যাঙ্গনে বড় ধরনের প্রভাব ফেলেছেন সাবরিনা রুবিন। রাশিয়া, ভারত, ফিলিস্তিন ও রোমানিয়ার গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্য-প্রতিষ্ঠান থেকে পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি।