ডি এফ এ যশোরের নামে টিআর প্রকল্পের ১০ টন চাল সংগঠনের সভাপতির পকেটে-সাংবাদিককে হুমকি

0
274

ক্রীড়া প্রতিবেদক : যশোর জেলা ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের নামে টিআর প্রকল্প থেকে সংগঠনের উন্নয়নের কথা বলে ১০ টন চাল উত্তলন করে নিজ পকেটে পুরার অভিযোগ উঠেছে খোদ সংগঠনের সভাপতি আসাদুজ্জামান মিঠুর নামে। যদিও এই টাকা  দিয়ে সংগঠনের উন্নয়ন করার কথা থাকলেও বাস্তবে একটি টাকারও উন্নয়ন হয়নি বলে দাবি করেছেন ডিএফএ যশোরের সাবেক এবং বর্তমান নেতারা।

যশোর ডিএ্ফএর অফিসে গিয়ে দেখা গেলো সেটা বাস্তবে একটি গুদাম ঘরে পরিনত হয়েছে। একটি আলমারি এবং একটি টেবিল থাকলেও আলমারিটা যশোর রেফারি সমিতির এবং টেবিলটি সাবেক ফুটবলার মোহাম্মাদউল্লার।

যশোর ত্রান অফিস সুত্রে যানা যায় ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে গ্রামীন অবকাঠামো রক্ষনাবেক্ষন প্রথম পর্যায়ে ১০ টন চাল ডিএফএ যশোরের নামে বরাদ্দ দেওয়া হয়। যেখানে উলেখ্য করা আছে ডি এফএর ভবন সংস্কার বাবদ ৭ টন এবং প্রাচির রং করা বাবদ ৩ টন চাল বরাদ্দ দেওযা হয়। যদিও এর কোন কাজই হয়নি বলে সরোজমিনে দেখা গেছে। মজার ব্যাপার হলো এই ১০ টন চালের কথা ডিএ্ফএর সভাপতি ছাড়া আর কোন সদস্যই জানেন না।

এ ব্যাপারে যশোরের একটি লোকাল পত্রিকার সাংবাদিক ডিএ্ফএর সভাপতি আসাদুজ্জামান মিঠুর সাথে কথা বললে তিনি উত্তেজিত হয়ে বলেন, আমি কোন চাল উত্তোলন করিনি, এ সময় তিনি ওই সাংবাদিককে হুমকি ধামকি দেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here