তরুণীর ছবি নিয়ে ব্লাকমেইল মামলায় তিনজন অভিযুক্ত

0
175

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে এক তরুণীর মোবাইল ফোন থেকে ছবি নিয়ে ব্ল্যাকমেইল ও চাঁদাবাজির মামলায় তিনজনের নামে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সেকেন্দার আবু জাফর। অভিযুক্তরা হলেন-নড়াইল সদরের চুনখোলা গ্রামের টুটুল বিশ্বাসের ছেলে সোহাগ হোসেন, যশোর বাঘারপাড়ার তরফ মাহমুদপুর গ্রামের মোবাশ্বের আলী খানের ছেলে কুদ্দুস আলী ও আবুল কালাম হাওলাদারের ছেলে সুমন হোসেন।

জানা যায়, যশোর নীলগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণী ২০২০ সালের ২ মার্চ তার মোবাইল ফোনসেট মেরামতের জন্য আরএন রোডের দি মোবাইল স্টোর নামক দোকানে আসেন। ওই দোকানের ম্যানেজার সোহাগ এবং সেলসম্যান সুমনের কাছে মোবাইল ফোন দেন তরুণী। এসময় মোবাইল মেরামতের জন্য তার ফেসবুক আইডির পাসওয়ার্ড লাগবে বলে চেয়ে নেয় তারা। মোবাইল মেরামত শেষে বাসায় চলে যান তরুণী। এরপর রাফি শেখ নামে একজনের ফেসবুক আইডি থেকে ওই তরুণীর আইডিতে একটি মেসেজ দেয়া হয়েছে। ওই বছরের ২৪ আগস্ট আসামি সুমনের আইডি থেকে ওই তরুণীর কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। চাঁদা না দিলে তার গোপন তথ্য ফাঁস করে তার ব্যক্তিগত তথ্য পরিবর্তন এবং কুরুচিপূর্ণ কথা লিখে মানসম্মানের ক্ষতি করবে বলে হুমকি দেয় তারা। এই ঘটনায় ৩ সেপ্টেম্বর কোতোয়ালি মডেল থানায় তিনজনকে আসামি করে চাঁদা দাবি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে ওই তরুণী। মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই তিনজনকে আটক করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আটক সোহাগ আদালতে স্বীকারোক্তি জবানবন্দি দেয়। তাদের দেয়া তথ্য ও সাক্ষীদের বক্তব্যের যাচাই বছাই করে ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় ওই তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।