তালায় ফসলী জমিতে খাল খনন : বাঁধা দেওয়ায় মা ও ছেলের উপর হামলা

0
245

তালা (সাতক্ষীরা), প্রতিনিধি : তালার আলোচিত চলশের বিলে ধান ক্ষেতের জমিতে গভীর খাল খননের প্রতিবাদ করায় ঘের ব্যবসায়ীর লোকদের হামলায় মা ও ছেলে আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে তালা উপজেলার কাজীডাঙ্গা গ্রামে।
উপজেলার কাজীডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল হাই জানান, এলাকার আলোচিত চলশের বিলে কেশবপুর এলাকার মোস্তাক আহম্মেদ ও মঞ্জুরুল ইসলাম পৃথক ভাবে মাছের ঘের করে আসছে। এরমধ্যে বারাত মৌজার ৭৫০ খতিয়ানের ১৫৩৯ দাগের দাগে তার ৫ বিঘা ধান চাষের জমিতে মোস্তাক আহম্মেদ গং মাছের ঘের করে আসছে। ঘের ব্যবসায়ী মোস্তাক আহম্মেদ উক্ত জমি থেকে গভীর ভাবে মাটি কেটে তাঁর ঘেরের বেড়িবাঁধ নির্মান করছে। কিন্তু ফসলী জমির মাটি কেটে গভীর খাল খনন করায় সেখানে ধানচাষ বন্ধ হয়ে যাবে এবং গভীর খাল সৃষ্টির কারনে যেকোনও সময় আশপাশের জমি ধ্বসে যাবার আশংকা দেখা দিয়েছে।
কাজীডাঙ্গা গ্রামের মালেক সরদার, নূর হোসেন ও রাজ্জাক সরদার জানান, আলোচিত চলশের বিলে মধু-মোস্তাক গং মাছের ঘের করতে যেয়ে এলাকার নিরিহ মানুষ এবং বিলের জমি মালিকদের উপর নানাবিধ অত্যাচার ও অনিয়ম করে যাচ্ছে। তাঁরা জানান, মঙ্গলবার সকালে স্কেভেটর মেশিন দিয়ে মাটি কেটে বেড়িবাঁধ সৃষ্টির নামে গভীর খাল খননের সময় নিজেদের ফসলী জমি রক্ষার্থে আব্দুল হাই এর ছেলে এরশাদ শেখ বাঁধা প্রদান করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘের মালিক মোস্তাক আহম্মেদ সহযোগী বাবলুর রহমান সহ ১২/১৪জন লোক এসে এরশাদ শেখ (৩৫) কে পিটিয়ে আহত করে। এসময় ছেলেকে উদ্ধার করতে আসলে হামলাকারীরা তার বৃদ্ধা মাতা জরিনা বেগম (৫৬)কে-ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। মা ও ছেলের উপর হামলার ঘটনাটি স্থানীয় ভাবে নিস্পত্তি না হলে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে। ভুক্তভোগী জমি মালিক আব্দুল হাই জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here