তিন বছর পর দেশে ফিরলেন ১২ বাংলাদেশি নারী

0
453

আশানুর রহমান আশা,বেনাপোল প্রতিনিধি : তিন বছর পর ১২ বাংলাদেশি নারীকে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ। তারা হলেন, রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ এলাকার মৃত শহিদ খানের মেয়ে সাথি খান (২০),শ্রীপুর সদরের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে সোনিয়া খাতুন (২২),খাগড়াছড়ি জেলার বারিক শেখের মেয়ে নারগিস শেখ (২৬),সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের সাত্তার শেখের মেয়ে কল্পনা খাতুন (২২),ময়মনসিংহের গৌরীপুর এলাকার তাজুল শেখের মেয়ে শিল্পি থাতুন (২৩), ঢাকা সাভার এলাকার সিদ্দিক হাওলাদারের মেয়ে সিমা খাতুন (২৪),খুলনা খালিশপুর থানা সদরের আব্দুল খায়েরের মেয়ে মুন্নি খাতুন (২৫),যশোর জেলার শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া এলাকার মৃত সাহেব আলীর মেয়ে ফুলবানু (২৫),যশোর নওয়াপাড়া এলাকার কুদ্দুস মোল্লার মেয়ে নিপা থাতুন (২৬) এবং লিমা খাতুন (২২),যশোর নড়াইল জেলার কালিয়া এলাকার নুর মোহাম্মদ-এর মেয়ে আদুরী খাতুন (২৫) ও ঢাকা সাভার এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে রূপা খাতুন (২৭)।

বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) বিকেলের দিকে তাদেরকে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে দেশে ফেরত আনা হয়।

তিন বছর আগে ভালো কাজের আশায় অবৈধ পথে ভারতের মহারাষ্ট্র এলাকায় বিভিন্ন হোটেল এবং বাসাবাড়িতে কাজ করার সময় পুলিশ তাদেরকে আটক করে জেলহাজতে পাঠায়। পরে সেখানকার একটি এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে নিজেদের হেফাজতে রাখেন।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনরে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল হাসান জানান, ফেরত আসা বাংলাদেশি ১২ নারীকে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মানবাধিকার সংস্থা ‘যশোর রাইটস’ তাদেরকে আহসানিয়া মিশন-এর হেফাজতে রেখে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here