তু‌মি য‌দি বি‌সি‌বিতে যাও তাহলে তোমাকে আর ঘরে তুলব না: শহীদ

0
268

ক্রীড়া ডেস্ক: নির্যাতনের অভিযোগ গিয়ে বাংলাদেশে ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবিতে স্ত্রী ফারজানা আক্তার লিখিত অভিযোগ নিয়ে যাওয়ার পরও ভাবান্তর নেই পেসার মোহাম্মদ শহীদের মধ্যে। মিরপুরে ক্রিকেট বোর্ডের কার্যালয়ে স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথার বলার সময় তিনি বলেন, বিসিবি তাকে কিছুই করতে পারবে না।

রবিবার সকালে সন্তান কোলে নিয়ে বিসিবিতে যান শহীদ পত্নী। তার অভিযোগ গত ২৩ জুন তাকে দুই সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয়। এরপর থেকে তিনি মুন্সীগঞ্জে নিজের বাড়িতে অবস্থান করছেন।

শহীদ পত্নী লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন, ২০১১ সালের ২৪ জুন শহীদের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। কিন্তু চার বছর পর পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই পাল্টে যেতে থাকেন শহীদ। একের পর এক মেয়ের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়ান। আর এক পর্যায়ে পেটে দ্বিতীয় সন্তান আসার পর মেয়ে জেনে তা নষ্ট করে দিতে চান। গত ২৪ আগস্ট এই মেয়ের জন্ম হয়, কিন্তু তিনি তার সন্তানকে মেনে নিতে রাজি হননি।

শহীদ পত্নীর এসব অভিযোগ নিয়ে ঢাকাটাইমস প্রথম সংবাদ প্রকাশ করে গত ২৮ জুন। এরপর বিভিন্ন গণমাধ্যমও তাকে নিয়ে একের পর এক প্রতিবেদন তৈরি করে। কিন্তু ভাবান্তর নেই শহীদের মধ্যে।

এর মধ্যে সংসার টেকাতে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ‍মৃণাল কান্তি দাসের কাছে ছুটে যান ফারজানা। আর তার পরামর্শেই তিনি বিসিবিতে অভিযোগ জানাতে আসেন।

সকালে বিসিবির কার্যালয়ে থেকেই শহীদের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন ফারজানা। এ সময় সাংবাদিকরাও উপস্থিত ছিলেন। আর স্পিকারে শহীদের সব কথাই শুনতে পারেন তারা।

শহীদ বলেন, ‘বি‌সি‌বি আমার কিছু করতে পারবে না। তু‌মি য‌দি বি‌সি‌বিতে যাও তাহলে তোমাকে আর ঘরে তুলব না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here