নাটের গুরু জায়েদ খান: শাকিব

0
402

জলসা ডেক্স : সেদিন রাতে কী হয়েছিল? নির্বাচনের পর রাতে কেন শাকিব খান এফডিসিতে গিয়েছিলেন? আর তার ওপর এই হামলাই বা কেন? এমন প্রশ্নের উত্তর এখনো মেলেনি। এরপর থেকেই শাকিব খান হাসপাতালে অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন। গতকাল জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় একটি অভিযোগও করেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই সুপারস্টার।

৫ মে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের পর ভোট গণনার সময় মধ্যরাতে সেখানে গিয়েছিলেন সমিতির বর্তমান সভাপতি শাকিব খান। এ সময় একটি পক্ষ তার ওপর হামলা চালানোর চেষ্টা করে। পরে তিনি সেখান থেকে চলে যাওয়ার সময় পেছন থেকে তাকে ধাওয়া দেয়া হয় এবং ঢিল ও জুতা ছুড়ে মারা হয়।

সেদিনের ঘটনায় নায়ক জায়েদ খানকে মূল হোতা হিসেবে সন্দেহ করছেন শাকিব। জায়েদ খান এবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

জায়েদ খান ২০০৬ সালে নতুন মুখের সন্ধানে প্রথম নির্বাচিত হওয়ায় চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান। প্রথম দিকে জায়েদ খান সহনায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বাংলা ভাই’ চলচ্চিত্রে নায়ক হিসেবে প্রথম পর্দায় হাজির হন। এরপর বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন নায়ক চরিত্রে। ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত  এবং অশ্লীলতা ও নকলের দায়ে অভিযুক্ত ‘দাবাং’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কারণে বেশ সমালোচিত হন জায়েদ খান।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় অভিযোগের এজাহারে শাকিব বলেন, ‘আমি বিএফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান সভাপতি হিসেবে দায়িত্বরত আছি। ৫ মে এফডিসিতে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ৬ মে দিবাগত রাত অনুমান ১টা ৩০ মিনিটে বিভিন্ন মারফত আমার কাছে খবর আসে নির্বাচনের ফলাফল এখন পর্যন্ত প্রকাশিত হয়নি। আপিল বিভাগের লোকজন শিল্পী সমিতি অফিসের ভেতরে ভোট গণনা কেন্দ্রে অবস্থান করছে ও বহিরাগত অনেক লোক সমিতির অফিসের বাইরে অবস্থান করছে। আমি সমিতির সভাপতি হিসেবে বিষয়টি দেখা আমার এখতিয়ারভুক্ত বিধায় এফডিসিতে আসি এবং দেখি যে, শিল্পী সমিতির অফিসে আপিল বিভাগের লোকজন ও বাইরে বহিরাগত লাল গেঞ্জি পরিহিত পিস্তল হাতে একজন সন্ত্রাসীসহ চাপাতি হাতে কয়েকজন বহিরাগত লোক অবস্থান করছে। এসব বহিরাগত লোক এফডিসির ভেতরে এতরাতে কীভাবে এল এবং কেন অস্ত্র হাতে অবস্থান করছে জানতে চাইলে ওইখানে উপস্থিত নৃত্যপরিচালক সাঈফ খান কালু, চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক, অভিনেতা জিয়া, ফাইটার শামিমসহ আরও কয়েকজন অজ্ঞাতনামা লোক আমার ওপর হামলা করতে আসে। আমাকে ছুরি দিয়ে আঘাত করার চেষ্টা করে। আমার এক ভক্ত আমাকে রক্ষা করতে গেলে আক্রমণকারীর ছুরির আঘাতে তার হাত কেটে যায়। আমি নিজের প্রাণ রক্ষার্থে পুলিশ, আমার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী, কিছু কলাকুশলীর সহযোগিতায় দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করি। তখন সন্ত্রাসীরা আমাকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ধর ধর বলে ধাওয়া করে।’

এজাহারে শাকিব খান আরও উল্লেখ করেন, ‘বর্তমানে বিভিন্ন মারফত আমাকে হুমকি দেয়া হচ্ছে যে, আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করবে ও রাস্তা-ঘাটে একা পেলে মেরে ফেলবে। এ অবস্থায় আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এসব কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনাকারী চিত্রনায়ক জায়েদ খানসহ আরও কয়েকজন জড়িত বলে আমার বিশ্বাস।’

এদিকে, ওই রাতের ঘটনার পর থেকে অসুস্থতা বোধ করছিলেন শাকিব খান।  সোমবার রাতে ল্যাব এইড হাপাতালে ভর্তি হন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here