নেশা করিয়ে পর্ন ভিডিও বানিয়ে ব্ল্যাকমেইল বলিউডে যত্রতত্র : শ্রুতি

0
37

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাজ কুন্দ্রার অ্যাপের ভিডিওতে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল অভিনেত্রী শ্রুতি গেরাকেও। যদিও তাকে বলা হয়েছিল, ওয়েব সিরিজের জন্য ডাকা হচ্ছে। কিন্তু মুম্বইয়ের বিজ্ঞাপনের জগতের চেনামুখ শ্রুতি সেই প্রস্তাবে রাজি হননি। পর্ন-কাণ্ডে রাজের গ্রেফতারির পর সেই অভিজ্ঞতা প্রকাশ করলেন তিনি। এই মুহূর্তে তার একটি কথাই মনে হচ্ছে, ‘ওদের থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে পেরেছি, এই আমার সৌভাগ্য।’ খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

কী ঘটেছিল : একাধিক কাস্টিং নির্দেশকদের কাছ থেকে ফোন এসেছিল শ্রুতির কাছে। যদিও তাদের নাম মনে নেই অভিনেত্রীর। বলা হয়েছিল, ডিজিটাল দুনিয়ায় পা রাখছেন রাজ কুন্দ্রা। তার সঙ্গেও আলাপ করিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু তৎক্ষণাৎ সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন শ্রুতি। রাজের গ্রেফতারির পর সাক্ষাৎকারে বলিউড ও টেলিদুনিয়ায় কাজ করার অভিজ্ঞতা জানালেন শ্রুতি। তার বক্তব্য, ‘আমরা সবাই জানতাম, রাজ কুন্দ্রার বিশাল নাম। কিন্তু দেখা গেল, তিনি পর্ন বানাতেন!’

বলিউড জগতে কম বয়সি ও পরিশ্রমী অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এ ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হতে হয় বলে দাবি শ্রুতির। তিনি বললেন, ‘জোর করে নেশা করিয়ে তাদের অজান্তেই আপত্তিকর ভিডিও তুলে তারপর এ ধরনের পর্ন বা যৌন উদ্দীপক ছবিতে কাজ করানোর জন্য ব্ল্যাকমেল করা হয়। বলিউডে এটা খুবই সাধারণ ঘটনা। যত্রতত্র দেখা যায় এটা।’

খ্যাতনামীদের অডিশন নেওয়া হয় না বলে জানালেন শ্রুতি। কোন ছবিতে মুখ্য চরিত্রে কে বা কারা অভিনয় করবেন, সেটা আগে থেকেই স্থির করা থাকে। শ্রুতির কথায় জানা গেল, সমস্ত অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় কিন্তু ছোট শিল্পীদের। কেবল নারী নয়, পুরুষদেরও এমন ভিডিওর জন্য জোর করা হয়। তাদের এমন পরিস্থিতির মুখে ফেলা হয়, যেখানে দাঁড়িয়ে আর কোনও পথ খোলা থাকে না। তাই শ্রুতির অনুরোধ, অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এ সবের জন্য দোষ দেওয়া উচিত নয়।